ব্রেকিং:
সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে পরিবহন ধর্মঘট,পণ্যের দাম বৃদ্ধির পাঁয়তারা! বাকিলায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী অমল ধর চাঁদপুর আয়কর মেলায় উপচেপড়া ভিড় ২১ নভেম্বর চাঁদপুরে নবান্ন উৎসব কবরের দাম ৪ লক্ষ পুরাণবাজারে পিডিবির বিদ্যুৎ খুঁটির তারে আগুন হাজীগঞ্জের বড়কূলে আ’লীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত চাঁদপুরের ডাকাতিয়া নদী দখল করে নানা রকম অবৈধ ব্যবসা মতলবে মাসিক আইনশৃঙ্খলা সভা অনুষ্ঠিত চাঁদপুরে পেঁয়াজের দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখতে যৌথ অভিযান হারতে বসা আর্জেন্টিনাকে বাঁচালেন মেসি রাজনৈতিক স্ট্যান্টবাজি করতেই চিঠি দিয়েছে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী বাবাকে শেষ গোসলে রেখে পরীক্ষায় বসল জ্যোতি মতলব উত্তরে পুকুরের প্রকৃত মালিককে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি ধনাগোদা নদীতে ফেলে মাদ্রাসা ছাত্রকে হত্যার চেষ্টা চাঁদপুরে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী পরীক্ষার প্রথমদিন অনুপস্থিত ১৮৮৭ কচুয়ায় আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ফরিদগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু পেঁয়াজের পাইকারি বাজারে অভিযান চাঁদপুরে এবার বীজ বরাদ্দ ৯৪৫ মে.টন

বুধবার   ২০ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬   ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৬০৬

অপহরণ করে লঞ্চযোগে ঢাকা নেয়ার পথে ধর্ষণ

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৯  

ফরিদগঞ্জে ৬ষ্ঠ শ্রেণির স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করে লঞ্চযোগে ঢাকা নেয়ার পথে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। শুধু তাই নয়, তাকে ধর্ষণের পর বাড়িতে ফিরিয়ে দেয়া হয়। ঘটনা সামনে আরো লোমহর্ষক। তা হচ্ছে_স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ লোকজন সালিসের কথা বলে ওই ছাত্রীর কাছ থেকে ৫টি নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয়ার পর উল্টো তাকে দোষী বলে বেত্রাঘাত করা হয়। এমন ঘৃণিত ও জঘন্য ঘটনার ৬ দিন পর থানায় মামলা দায়ের করেন ওই ছাত্রীর মা। পরে তার ডাক্তারী পরীক্ষার পর আদালতে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে ধর্ষিতা।

থানায় দায়েরকৃত মামলা ও আদালতে দেয়া জবানবন্দি অনুযায়ী জানা গেছে, বালিথুবার আব্দুল হামিদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর (১৪) সাথে একই এলাকার থাই অ্যালুমুনিয়ামের মিস্ত্রী ফারুক উকিলের (২৪)- সম্পর্ক ছিলো। গত ৩০ অক্টোবর সে স্কুুলে যাওয়ার জন্যে বাড়ি থেকে বের হলে ফারুক সিএনজি স্কুটার নিয়ে পথে দাঁড়ায়। ফারুক তাকে চাঁদপুরে যাওয়ার জন্যে বললে সে রাজী হয়নি। পরে তাকে জোরপূর্বক গাড়িতে উঠিয়ে লঞ্চযোগে ঢাকা নিয়ে যায়। ঢাকা যাওয়ার পথে লঞ্চের কেবিনে ওই স্কুলছাত্রীকে জোরপূর্বক দু'বার ধর্ষণ করে ফারুক। পরে ঢাকায় গিয়ে পুনরায় আরেকটি লঞ্চযোগে তাকে নিয়ে চাঁদপুর আসে ফারুক। এদিকে এলাকায় আসার পর স্থানীয় প্রভাবশালী লোকজন বিয়ে পড়িয়ে দেয়া ও সালিসের মাধ্যমে সুরাহার কথা বলে স্থানীয় ইউপি সদস্য হারিছ মেম্বার, মহসীন তপাদারসহ লোকজন ওই ছাত্রীর কাছ থেকে ৫টি নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর রাখে। একই সাথে হারিছ মেম্বারের নির্দেশে ছাত্রীটিকে বেত্রাঘাত করা হয় বলে মামলার বাদী ধর্ষিতার মা জানান।

এদিকে ঘটনার ৬দিন পর গত ৪ নভেম্বর ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে ধর্ষক ফারুক উকিলকে প্রধান আসামী করে ফরিদগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। পুলিশ ঘটনাটি আমলে নিয়ে মামলা হিসেবে গ্রহণ করে পরদিন ৫ নভেম্বর ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ওই ছাত্রীকে হাসপাতালে প্রেরণ করে। এছাড়া চাঁদপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হাসান জামানের আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২২ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করে ধর্ষিতা ওই স্কুলছাত্রী।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এইচএম হারুন জানান, স্থানীয় ইউপি সদস্য তাকে ফোনে ছেলে-মেয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনার কথা জানায়। তখন আমি তাকে বলেছি, যদি পুলিশি বিষয় হয় তাহলে পুলিশকে খবর দিতে। আর যদি স্থানীয়ভাবে মীমাংসার বিষয় হয় তাহলে সাদা কাগজে উভয়ের অভিভাবকের স্বাক্ষর রেখে তাদের জিম্মায় ছেলে-মেয়েকে হস্তান্তর করে পরবর্তীতে উভয় পক্ষের সম্মতিতে বৈঠকের আয়োজনের জন্যে। কিন্তু ধর্ষণসহ অন্য বিষয়ে আমি কিছুই জানি না।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফরিদগঞ্জ থানার এসআই নাজমুল হোসেন বুধবার দুপুরে জানান, মামলা দায়েরের পর অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা চলছে। ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষা ও ২২ ধারায় আদালতে জবানবন্দি সম্পন্ন হয়েছে।

থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রকিব জানান, ধর্ষণের ঘটনায় সালিসের কোনো সুযোগ নেই। কিন্তু সালিসের নামে কালক্ষেপণ, স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর আদায় ও বেত্রাঘাতের মতো ঘটনা ঘটিয়েছে। যা গুরুতর এবং জঘন্য অপরাধ। মামলার তদন্ত চলছে।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর