ব্রেকিং:
চাঁদপুরে ট্রাফিক পুলিশের অভিযানে ১১ সিএনজি অটোরিক্সা জব্দ কমিউনিটি পুলিশ চট্টগ্রাম রেঞ্জের প্রথম স্থানে চাঁদপুরের রব দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে: শিল্প প্রতিমন্ত্রী ‘এরশাদের আসনে আওয়ামী লীগ অংশ নেবে’ সবাই মিলে দেশটাকে গড়ে তুলতে হবে: গণপূর্তমন্ত্রী দুর্যোগ মোকাবিলায় পর্যাপ্ত ত্রাণ প্রস্তুত: বাণিজ্যমন্ত্রী ‘আওয়ামী লীগের আমলে বৃক্ষ রোপণের গণজাগরণ হয়’ শিক্ষামন্ত্রীর স্বামী তৌফিক নেওয়াজ গুরুতর অসুস্থ বন্যা মোকাবিলায় মাঠে সরকার ‘আমরা বাংলাদেশের বোঝা হয়ে আর থাকতে চাই না’ শুধু কূটনৈতিক নয়, অর্থনৈতিক বিষয়গুলোতে জোর দিতে হবে টাইগার অধিনায়ক তামিম ইকবাল আখের রস কেন খাবেন? অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা চাঁদপুরে মেঘনার পানি জোয়ারে বিপদসীমা অতিক্রম করেছে শিক্ষামন্ত্রীর স্বামীর সুস্থতা কামনায় মসজিদে দোয়া ‘ট্রাম্পের কাছে প্রিয়া সাহার অভিযোগ উদ্দেশ্যমূলক’ প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে অণ্ডকোষ হারালো যুবক মিয়ানমারের উপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা পর্যাপ্ত নয়: জাতিসংঘ ব্যক্তিস্বার্থে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অপচেষ্টায় প্রিয়া সাহা

সোমবার   ২২ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ৬ ১৪২৬   ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
পদ্মা সেতু নিয়ে গুজবে গ্রেফতার ১ জন অপপ্রচারই বিএনপির পুঁজি: ওবায়দুল কাদের ‘মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা হবে ১৫ হাজার টাকা’ জেলা প্রশাসক সম্মেলন ১৪ জুলাই বাংলাদেশের আর্থিক অন্তর্ভুক্তির প্রশংসায় রানী ম্যাক্সিমা নতুন দুই মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর শপথ ১৩ জুলাই
১৪২৮

অযত্নে অবহেলায় চাঁদপুর মডেল থানার গুরুত্বপূর্ণ ফাইলগুলো

প্রকাশিত: ৩ জুলাই ২০১৯  

চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশের অফিস ফাইলসহ, গুরুত্বপূর্ণ সকল ফাইল অযত্ন-অবহেলা ও নিরাপত্তাহীনতায় পড়ে আছে।
জানা যায়, পুলিশ প্রশাসনের অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রকল্পে সারাদেশের ন্যায় চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশের জন্যে, চারতলাবিশিষ্ট এল সিস্টেম একটি ভবন নির্মাণ করা হয়। মডেল থানার সাবেক ভবনের একাংশের অবকাঠামো ভেঙে নতুন ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। পরবর্তীতে ৪র্থ তলা এল সিস্টেম ভবনের একাংশের কাজ শেষ হলে এই অংশে থানার কার্যক্রম চলে। আর অপর পুরনো অংশটি ভেঙ্গে ৪র্থ তলা ভবনের পূর্ণাঙ্গ নির্মাণ কাজ শেষ করা হয়।

পুরো ভবনের কাজ শেষ হয়ে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনও হয়। পুরোদমে মডেল থানার সকল কার্যক্রম নতুন এ ভবনে চলে। ভবনের ৩য় ও ৪র্থ তলায় রয়েছে পুলিশের কনস্টেবল থেকে শুরু করে সাব ইন্সপেক্টর বা এএসআই ও এসআইদের আবাসিক রুম। ২য় তলায় এএসআই ও এসআইদের অফিস রুম, আসামীদের হাজতখানা রয়েছে। এমনকি ২/১টি খালি রুমও রয়েছে। আর নিচতলায় মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার রুমসহ ৩ জন ইন্সপেক্টরের আলাদা রুম, ডিউটি অফিসারের রুম, কম্পিউটার রুম, ওয়েটিং রুম, মুন্সির রুম এবং বিশাল আকারের ডাইনিং রুম রয়েছে। 

ভবনের বর্তমান রুমগুলো যে যেভাবে পারছে ব্যবহারের অনুমতি নিয়ে ব্যবহার করছে। প্রতিটি রুম চাকচিক্যপূর্ণ বা সুন্দর করে সাজানো হলেও এ মডেল থানার শত শত গুরুত্বপূর্ণ ফাইল বা প্রমাণাদি রাখার রুমটি আজও নির্ধারিত না হওয়ায় ফাইলগুলো এলোমেলো অবস্থায় বিক্ষিপ্তভাবে পড়ে থাকছে।
ভবনের ২য় তলার সিঁড়ির পাশে ছোট্ট একটি খোলামেলা রুমের ভিতর এবং রুমের সামনে এমনকি সিঁড়ির গোড়ায় পর্যন্ত ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ফাইলগুলো পড়ে রয়েছে। এই ফাইলগুলো স্তূপ আকারে পড়ে থাকলেও তা কারোই চোখে পড়ছে না।

জানা যায়, এ ভবনের ২য় তলায় জনগণের বিভিন্ন অভিযোগের বিষয়ে প্রতিনিয়ত দরবার বা সালিস হচ্ছে। আর এতে করে শত শত লোকের প্রতিনিয়ত এখানে চলাচল রয়েছে। ফলে ময়লা-আবর্জনা প্রতিনিয়ত ফাইলগুলোর উপর পড়ে তা নষ্ট হচ্ছে। এ অবস্থায় চাঁদপুর মডেল থানার জনগুরুত্বপূর্ণ এ ফাইলগুলো যেভাবে এলোপাতাড়ি পড়ে রয়েছে, তাতে কোনো ব্যক্তি উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে এখান থেকে ডকুমেন্টস চুরি বা গায়েব, এমনকি নষ্ট করলে আশ্চর্য হওয়ার কিছু থাকবে না। ফাইলগুলো ঝড়-বৃষ্টিতে অথবা কোনো অবহেলায় নষ্ট হওয়ার উপক্রম হলেও, এগুলো সুরক্ষায় মডেল থানা কর্তৃপক্ষের এমন উদাসীনতা কেন সচেতন মহলের কাছে সে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। শুধু তাই নয়, ভবনটির ৩য় ও ৪র্থ তলায় থানার এএসআই ও এসআইসহ যারা আবাসস্থল হিসেবে অবস্থান করছেন, তারাও তো এ সিঁড়ি ব্যবহার করে চলাফেরা করছেন। তাদের চোখেও কি এলোপাতাড়ি এবং ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে থাকা এ ফাইলগুলো পড়ে না?

এ বিষয়ে চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ নাসিম উদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, ভবন হওয়ায় আমরা মোটামুটি অবকাঠামো সমস্যার কিছুটা সমাধান পেয়েছি। অফিসের কাজে নির্ধারিত রুমগুলো সাজানো হচ্ছে। অফিসের ফাইলপত্র রাখার রুম নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে ওই রুমের তাকগুলো আমরা এখনো পাইনি। এজন্যে ফাইলগুলো বর্তমান স্থানে রয়েছে। আশা করছি খুব সহসাই তাকগুলো পেয়ে যাবো। তিনি এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, চুরি বা গায়েব হওয়ার কোনো উপায় নাই। কারণ চাঁদপুর মডেল থানা এরিয়া ও ভবন সম্পূর্ণরূপে সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত রয়েছে।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর