ব্রেকিং:
একাদশ সংসদের ৫ম অধিবেশন বসবে ৭ নভেম্বর অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে: স্পিকার রাজাকার ওয়াহিদুল হকের বিচার শুরু শপথের মধ্য দিয়ে শেষ হলো বুয়েট শিক্ষার্থীদের আন্দোলন দুর্ঘটনা এড়াতে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির জরুরি সভা করদাতাদের সুবিধার্থে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ অপরাজনীতিমুক্ত ফরিদগঞ্জ গড়তে ভূমিকা রাখবে যুবলীগ সেমি-ফাইনালে চাঁদপুর পদ্মা-মেঘনায় ডিসি-এসপি ভাঙ্গনের কবলে আবারও চাঁদপুরে শহর রক্ষা বাঁধ আগামীকাল রবীন্দ্র-নজরুল স্মরণোৎসব ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা তবুও এতো বরফ যায় কোথায়? তারুণ্যের শক্তি-বাংলাদেশের সমৃদ্ধি ইলিশ ধরার চেষ্টাকারীকে প্রশাসনের কঠোর হুঁশিয়ারি আবরার হত্যাকাণ্ডকে ইস্যু বানাতে চাচ্ছে বিএনপি: কাদের দুর্নীতির অভিযোগে কাঠগড়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট কোটি টাকার কারেন্ট জালে আগুন জনগণের অধিকার সুরক্ষায় আইপিইউকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান বুয়েটে মাঠ পর্যায়ে আন্দোলন স্থগিত

বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৭ সফর ১৪৪১

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৭৪১

আতঙ্কিত হবেন না: ডেঙ্গু মরণব্যাধি নয়

প্রকাশিত: ৫ আগস্ট ২০১৯  

এডিস মশা বাহিত ডেঙ্গু ভাইরাস জনিত গ্রীষ্মমণ্ডলীয় একটি রোগ ডেঙ্গু জ্বর। এডিস মশার কামড়ের মাধ্যমে ভাইরাস সংক্রমণের তিন থেকে পনেরো দিনের মধ্যে সচরাচর ডেঙ্গু জ্বরের উপসর্গগুলো দেখা দেয়। উপসর্গগুলোর মাঝে রয়েছে জ্বর, মাথাব্যথা, বমি, পেশিতে ও গাঁটে ব্যথা এবং গায়ের চামড়ায় ফুসকুড়ি। তবে দুই থেকে সাত দিনের মাঝে সাধারণত ডেঙ্গু রোগী আরোগ্য লাভ করে।

কিছু কিছু ক্ষেত্রে রোগটি মারাত্মক রক্তক্ষরী রূপ নিতে পারে, যাকে ডেঙ্গু রক্তক্ষরী জ্বর (ডেঙ্গু হেমোরেজিক ফিভার) বলা হয়। এর ফলে রক্তপাত হয়, রক্ত অনুচক্রিকার মাত্রা কমে যায় এবং রক্ত প্লাজমার নিঃসরণ ঘটে। কখনো আবার ডেঙ্গু শক সিন্ড্রোম দেখা দেয়। ডেঙ্গু শক সিন্ড্রোমে রক্তচাপ বিপজ্জনকভাবে কমে যায়।

ডেঙ্গু জ্বর হলে পরিপূর্ণ বিশ্রাম নিতে হবে এবং বেশি করে তরল খাবার গ্রহণ করতে হবে। জ্বর কমাতে প্যারাসিটামল দেয়া হয়। প্রায়ই স্যালাইন দিতে হতে পারে। মারাত্মক রূপ ধারণ করলে রোগীকে রক্ত দিতে হতে পারে। ডেঙ্গু জ্বরে হলে কোনো ধরণের এন্টিবায়োটিক ও ননস্টেরয়েডাল প্রদাহপ্রশমী ওষুধ সেবন করা যাবে না।

ডেঙ্গু রোগের কিছু সত্য-

১. ডেঙ্গু ভাইরাস জনিত রোগ।

২. ডেঙ্গুর ৪ টা সেরোটাইপ আছে।।

৩. একবার ডেঙ্গু হলে আর হবে না এটা ভুল। যে সেরোটাইপ দিয়ে হয়েছে সেটা হবে না আর। অন্য তিনটি সেরোটাইপ দিয়ে হতে পারে।

৪. ডেঙ্গু ডোরা কাটা এডিস স্ত্রী মশা দ্বারা ছড়ায়।

৫. এটা আবদ্ধ পরিষ্কার পানিতে ডিম পারে।

৬. ফেইসবুক দেখে ডেঙ্গুর চিকিৎসা নিবেন না। কোনো টোটকা ব্যবহার করবেন না।

৭. সব সময় টিপিকাল প্রেজেন্টেশন না নিয়ে ডেঙ্গু হতে পারে।

৮. দুর্বল লাগলে ডাক্তারের কাছে রিপোর্ট করুন।

৯. প্রথমে রক্তের সি বি সি করুন।

১০. NS1 এন্টিজেন ৩০% ক্ষেত্রে নেগেটিভ হয়। ডেঙ্গু এন্টিবডি পজিটিভ হলে এন্টিজেন নেগেটিভ হয়।

১১. নিচে বাম দিকের গুলো ডেঞ্জার সাইন। ডান দিকের গুলো ক্লাসিকাল ডেঙ্গুর ব্যবস্থাপনা।

১২. সব জ্বর ডেঙ্গু নয়।

১৩. আতঙ্কিত না হয়ে চিকিৎসক এর পরামর্শ নিয়ে পজিটিভ হলে হাসপাতালে ভর্তি হন।

১৪. ডাক্তার না ছাড়পত্র দিলে হাসপাতাল ত্যাগ করবেন না।

১৫. এন্টিজেন একটি ডায়াগনস্টিক টেস্ট।

১৬. প্রথমে ব্লাড সিবিসি করে তারপর প্রয়োজন হলে এন্টিজেন করবেন।

 

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. নাছির উদ্দিন আহমেদ
পরিচালক, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর