ব্রেকিং:
ফরিদগঞ্জে স্ত্রীর মামলায় ছেলে আটক, আটকের কথা শুনে পিতার মৃত্যু চাঁদপুরে গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের টুকিটাকি অনৈতিক কাজের অভিযোগে মমিনবাগ থেকে আটক ২ শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ প্রফেসর মনোহর আলীর সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে এখানকার খেলোয়াড়রা কাজ করে যাবে ফরিদগঞ্জ থানার ওসিসহ দুই পুলিশ অফিসার পৃরস্কৃত দেশ গড়ার প্রত্যয়ে খেলাধুলাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে এগিয়ে যেতে চাই চাঁদপুর শহরে তিন প্রতিষ্ঠানকে সতর্ক ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য জব্দ জামানত রেখে ঋণ দিতে হবে: অর্থমন্ত্রী ৪৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ দিচ্ছে টিসিবি শিগগিরই কমবে পেঁয়াজের দাম শেখ হাসিনার আন্তর্জাতিক ৩৭ পদক লাভ আরো দুটি বোয়িং বিমান কেনার ইঙ্গিত প্রধানমন্ত্রীর পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু খেলোয়াড়দের মাঝে চাঁদপুর পৌরসভার জার্সি বিতরণ নবাগত পুলিশ সুপারকে জেলা সংবাদপত্র সম্পাদক পরিষদের ফুলেল শুভেচ্ছা হাইমচর উপজেলার দুর্গাপুর উচ্চ বিদ্যালয় কাবাডি দল জেলায় চ্যাম্পিয়ন হাজীগঞ্জে ডাকাতিয়া নদী থেকে নবজাতকের লাশ উদ্ধার চাঁদপুরে ইলিশ মাছ রক্ষায় সব বাহিনী কাজ করবে শাহরাস্তিতে ৪টি খাবার হোটেলকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা

বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ২ ১৪২৬   ১৮ মুহররম ১৪৪১

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৭৭

কাবিন থেকে ‘কুমারী’ শব্দ তুলে দেয়ার নির্দেশ

প্রকাশিত: ২৬ আগস্ট ২০১৯  

বিয়ের কাবিনে (নিকাহনামা) কুমারী শব্দটি তুলে দিয়ে ‘অবিবাহিত’ যোগ করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এতদিন নিকাহনামার পাঁচ নম্বর কলামে ‘কুমারী’ শব্দ ব্যবহার হয়ে আসছিল।একই সঙ্গে নিকাহনামার চারের ‘ক’ উপধারা যুক্ত করে ছেলেদের ক্ষেত্রে বিবাহিত, অবিবাহিত, তালাকপ্রাপ্ত (ডিভোর্স) বা বিপত্নীক কিনা লিপিবদ্ধ করতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

রোববার রুল নিষ্পত্তি করে বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ রায় দেন।আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না ও আইনজীবী আইনুন্নাহার সিদ্দিকা। সম্পূরক আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ইশরাত হাসান।

এর আগে গত ১৬ জুলাই আদালতে উপস্থিত সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেনের মতামত (ইন্টারভেনর) জানতে চাইলে তিনি বলেন, নিকাহনামার পাঁচ নম্বর কলাম বিধির রাখার প্রয়োজন নেই। এটা ব্যক্তির গোপনীয়তার বিরোধী। কনের ব্যক্তি মর্যাদাকে ক্ষুণ্ণ করে। ইসলামী শরিয়াহ এ ধরনের বিধানকে সমর্থন করে না।

২০১৪ সালে নিকাহনামার পাঁচ নম্বর কলামের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করে বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাষ্ট (ব্লাস্ট)। এ রিটে নিকাহনামাতে বর-কনের ছবি ও জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি সংযুক্ত করার নির্দেশনা চাওয়া হয়। পরে প্রাথমিক শুনানি শেষে নিকাহনামার পাঁচ নম্বর বিধিটি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। এ রুলের চূড়ান্ত নিষ্পত্তি করে রায় দেয়া হয়েছে।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর