ব্রেকিং:
নারায়ণগঞ্জ থেকে চান্দ্রায় আসা লোকদের ২৬ বাড়ি লকডাউন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় অ্যাডিশনাল এসপির নেতৃত্বে পুলিশের তৎপরতা বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে দুটি গ্রাম লকডাউন চাঁদপুর জেলা পূর্ণ লকডাউন হাইমচরে জনতা বাজারে জীবাণুনাশক স্প্রে বড়কূল পূর্ব ও পশ্চিম ইউনিয়নে ১০ টাকা কেজি চাল বিক্রয় ইথানলে সারবে করোনাভাইরাস,ব্যবহার পদ্ধতি জানালেন অধ্যাপক আলিমুল দেশে করোনায় আরো একজনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১১২ জেলার সকল প্রবেশমুখ লকডাউন করার আহ্বান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পুরাণবাজার ফাঁড়ি পুলিশের অভিযানে জাটকা ও জাল উদ্ধার মতলব উত্তরে স্থানীয়ভাবে স্বেচ্ছায় লকডাউন ফরিদগঞ্জে কামরুল হাসান সউদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত হাইমচরে ২০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ পুরাণবাজার ট্রলারঘাটে পুলিশের চেকপোস্ট ॥ ওসির ঘাট পরির্দশন সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন জাবেদ পাটোয়ারী করোনা নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে তাসনিম খলিলের মিথ্যাচার, সৌদি রাজ পরিবারের ১৫০ সদস্য করোনায় আক্রান্ত! যুক্তরাজ্যে প্রথমবার বিবিসি রেডিওতে জুমার নামাজ সম্প্রচার ঘুষের অভিযোগ অস্বীকার করলো কাতার করোনায় মৃত্যু ৮৮ হাজার ছাড়ালো
  • শুক্রবার   ১০ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৭ ১৪২৬

  • || ১৬ শা'বান ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৯১

গুজব নয় সত্য জানুনঃ ব্যাংক আমানতের বিপরীতে ১ লক্ষ টাকা দিচ্ছে কে?

দৈনিক চাঁদপুর

প্রকাশিত: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ব্যাংক দেউলিয়া হয়ে গেলে গ্রাহকদের টাকার কি হবে-- সাম্প্রতিক সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু কনফিউজিং তথ্য ছড়াচ্ছে। অনেকেই বলছে ব্যাংকে আপনার যত টাকা জমা থাকুক, দেউলিয়া হয়ে গেলে ফেরত পাবেন মাত্র ১ লক্ষ টাকা। 
এই গুজবে অনেক আমানতকারী এখন আতঙ্কগ্রস্ত। এক্ষেত্রে সত্যতা না জেনে অনর্থক গুজবে কান না দিতে সবাইকে প্রথমেই আহ্বান জানাচ্ছি। সবাই বিশারদ হয়ে গেলে সমস্যা তো!
যারা ছড়াচ্ছিলো ব্যাংক দেউলিয়া হয়ে গেলে আমানতকারিরা যতো টাকাই রেখেন না কেনো, মাত্র ১ লক্ষ করে ফেরত পাবেন, তাদের জ্ঞাতার্থে নিচের পয়েন্টগুলোঃ 

# ধরা যাক, আমি ‘ক’ নামক একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ৫ লক্ষ টাকা আমানত রেখেছি তিন বছরের জন্য। ৩ বছর শেষে আমি প্রতিষ্ঠানটির নিকট মুনাফাসহ ৭ লক্ষ টাকা প্রাপ্য। এর মধ্যে হঠাৎ করে ‘ক’ আর্থিক প্রতিষ্ঠানটি অবসায়ন বা বন্ধ ঘোষণা করা হলো। এখন স্বাভাবিকভাবে প্রশ্ন আসে আমার আমানতের কী হবে?

# রেগুলেটরি অথরিটি কর্তৃক আর্থিক প্রতিষ্ঠানটির সমস্ত সম্পদ বিক্রয় করে ক্যাশ টাকায় রূপান্তর করা হবে। সাধারণ আমানতকারীকের পাওনা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পরিশোধ করা হবে।

# ধরুন, আমার মতো আমানতকারীর সংখ্যা ১০০ জন। সবাই ৫ লক্ষ টাকা করে আমানত রেখেছেন। তাহলে সাধারণ আমানতকারীদের আমানতের পরিমাণ ৫ কোটি টাকা। ৩ বছর শেষে ‘ক’ প্রতিষ্ঠানটির নিকট সাধারণ আমনতকারীদের প্রাপ্য ৭ কোটি টাকা।

# আর্থিক প্রতিষ্ঠানটির সমস্ত সম্পদ বিক্রয় করার পর ক্যাশ টাকার পরিমাণ দাঁড়ালো ৭ কোটি টাকা। তাহলে সাধারণ আমানতকারীরা পুরো টাকাই ফেরত পাবেন মুনাফাসহ।

# যদি ক্যাশ টাকার পরিমাণ ৭ কোটি টাকার কম হয় সেক্ষেত্রে কী হবে? ধরুন, ৬ কোটি টাকা হলো। সেক্ষেত্রে আমানতকারীরা আনুপাতিক হারে টাকা পাবেন। এক্ষেত্রে ১০০ জন আমানতকারী ৬ লক্ষ টাকা করে পাবেন।

# আর্থিক প্রতিষ্ঠানটির কাছে আমার প্রাপ্য ৭ লক্ষ টাকা। কিন্তু আমি পাচ্ছি ৬ লক্ষ টাকা। তাহলে বাকি ১ লক্ষ টাকার কী হবে?

# আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের সাধারণ আমানতকারীগণ এতদিন বীমার আওতায় ছিলেন না। সম্প্রতি সরকার আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের আমানতকারীদের বীমা সুরক্ষা দেওয়ার চিন্তা করছেন যা “আমানতকারী সুরক্ষা আইন, ২০২০” নামে ইতোমধ্যেই মন্ত্রীসভার নীতিগত অনুমোদন লাভ করেছে এবং সংসদে আইনটি পাশ হলেই বিষয়টি কার্যকর হবে।

# এ সুরক্ষা আইনে আর্থিক প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগকারী সাধারণ আমানতকারীগণ সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বীমা সুরক্ষা পাবেন। আমি যেহেতু এ সুরক্ষা আইন কার্যকর হওয়ার আগে আমানত রেখেছি, সেহেতু এ আইনে আমি সুরক্ষা পাবো না। আইনটি কার্যকর হওয়ার পর থেকে যারা এসব আর্থিক প্রতিষ্ঠানে আমানত রাখবেন, তারা এ আইনের আওতায় সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বীমা সুরক্ষা পাবেন।

# ব্যাংকসমূহের ক্ষেত্রে সাধারণ আমানতকারীদের জন্য এ সুরক্ষাটি ১৯৮৩ সালের অর্ডিন্যান্সে পাস করা হয় এবং পরবর্তীতে “ব্যাংক আমানত বীমা আইন, ২০০০” (২০০০ সনের ১৮নং আইন) নামে পাস করা হয়।"
..
অতএব মিছে গুজবে বিভ্রান্ত না হয়ে বীমার আশ্রয় নিন

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
অর্থনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর