ব্রেকিং:
স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের ছবি ব্যবহার করে ফেসবুকে প্রতারণা উৎপাদন বৃদ্ধিতে একযোগে কাজ করার অঙ্গীকার করোনাকালে চূড়ান্ত এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ করোনা মোকাবেলায় বঙ্গবন্ধুর স্বাস্থ্যসেবা দর্শন বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে করোনা পরীক্ষা হবে চার বেসরকারি হাসপাতালে ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রশংসা করলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশে ৫৪৯ নতুন করোনা রোগী শনাক্ত, আরো ৩ মৃত্যু হাসপাতাল থেকে পালানো করোনা রোগীকে বাগান থেকে উদ্ধার চাঁদপুরে ২০০০ পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ চীনের ৪ বিশেষজ্ঞ ঢাকায় আসছেন ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে ১৪শ` কোটি টাকার জরুরি প্রকল্প নির্দেশনা না মানায় গণস্বাস্থ্যের কিট গ্রহণ করিনি বাংলাদেশে ১৯ মের মধ্যে করোনা বিদায় নেবে ৯৭ শতাংশ চাকরির বয়স শিথিলের বিষয় ভাবছে সরকার মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট
  • বৃহস্পতিবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৯ ১৪২৭

  • || ০৫ সফর ১৪৪২

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৪৭৭

চাঁদপুরে অবৈধভাবে চলছে ৬০টি ইটভাটা

দৈনিক চাঁদপুর

প্রকাশিত: ২৬ জানুয়ারি ২০২০  

চাঁদপুর জেলার ৮টি উপজেলায় বর্তমানে ১২৫টি ইটভাটা রয়েছে। এসব ইটভাটার মধ্যে ৬০টি সরকারের নিয়মনীতি না মেনে অবৈধ প্রক্রিয়ায় ইট উৎপাদন করে যেমনি পরিবেশকে ধ্বংস করছে, তেমনি লাখ লাখ টাকা উপার্জন করলেও সরকার বিরাট অংকের রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এসব ইটভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তরের নিয়মনীতি না মেনে কাঠ, টায়ার, বিভিন্ন গার্মেন্টসের বর্জ্য ও ভুষি জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করছে। আর তা থেকে নির্গত কালো ধোঁয়া পরিবেশকে দূষিত করে তুলছে। জনগণও এর মারাত্মক ক্ষতির শিকার হচ্ছে, নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। পাশাপাশি ইটভাটার কাজে ব্যবহৃত ট্রাক্টর গ্রামীণ জনপদকে ক্ষতিগ্রস্ত করে ফেলছে। এতে মানুষের নিত্যদিন চলাচলে মারাত্মক দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

চাঁদপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে যেখানে সেখানে অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে অর্ধ শতাধিক ইটভাটা। নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে গড়ে উঠা ওইসব ইটভাটার কারণে হুমকির মুখে পড়েছে জনস্বাস্থ্য। বিশেষ করে ইটভাটাগুলোতে কাঠ, টায়ার ও মাত্রাতিরিক্ত সালফারযুক্ত পাথুরে কয়লা ব্যবহারের ফলে পরিবেশ রয়েছে হুমকির মুখে। শুধু তাই নয়, ওইসব অবৈধ ইটভাটার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে গ্রামীণ জনপদ এবং ফসলি জমি।

চাঁদপুর পরিবেশ অধিদপ্তরের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, চাঁদপুরের ৮টি উপজেলায় ১২৫টি ইটভাটা রয়েছে। এর মধ্যে হালনাগাদ ছাড়পত্র রয়েছে মাত্র ৪০টি ইটভাটার। বন্ধ রয়েছে ২৫টি। বাকি ৬০টি ইটভাটা নিয়মনীতি না মেনেই অবৈধভাবে ইট উৎপাদন অব্যাহত রেখেছে। তবে এর মধ্যে ১০/১৫টি ইটভাটার ছাড়পত্র প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবেশ অধিদপ্তর চাঁদপুরের উপ-পরিচালক এএইচএম রাশেদ।

সূত্র মতে, ওইসব অবৈধ ইটভাটার বেশিরভাগই ১২০ ফুট উচ্চতার চিমনি বিশিষ্ট সনাতন ইটভাটা। আবার কিছু ইটভাটা রয়েছে নিষিদ্ধ এলাকায়। যেমন : শহর এলাকায়, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কিংবা রেলাইনের পাশে অবস্থিত। এসব স্থানে ইটভাটা করা আইনত নিষিদ্ধ। আবার ওইসব ভাটায় পরিবেশ অধিদপ্তরের নিয়মনীতিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে কাঠ, টায়ার, বিভিন্ন গার্মেন্টসের বর্জ্য ও ভুষি জ্বালিয়ে তা থেকে নির্গত কালো ধোঁয়ায় পরিবেশ দূষিত করছে। এতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এমনকি ইটভাটার ধোঁয়ায় জমির ফসল এবং ফলদ গাছে ফল ধরাও হ্রাস পাচ্ছে।

এদিকে ইটভাটার কাজে ব্যবহৃত ট্রাক্টর নামক যন্ত্রদানবের বেপোরোয়া চলাচলে গ্রামীণ জনপদ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ট্রাক্টরের চলাচলে ভেঙ্গে পড়ছে বহু সেতু-কালভার্ট।

এছাড়াও চাঁদপুরে কিছু ইটভাটায় মাত্রাতিরিক্ত সালফারযুক্ত পাথুরে কয়লা ব্যবহার হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। আর আমদানি করা ওইসব কয়লা পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। ওইসব কয়লা ব্যবহারের ফলে ইটভাটা সংলগ্ন এলাকাগুলোতে পরিবেশ দূষণের পাশাপাশি বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষজন।

তবে সদর উপজেলার শাহতলী এলাকার বাসিন্দা খায়রুল ইসলাম এবং কাউছার আলম অভিযোগ করে বলেন, সংশ্লিষ্টদের নিয়মিত মনিটরিং না থাকায় ওইসব কয়লা যত্রতত্র ব্যবহার করা হচ্ছে। চাঁদপুর পরিবেশ আন্দোলনের নেতা মোঃ নাছির চোকদার বলেন, ওইসব ইটভাটার ধোঁয়া বাতাসে মিশলে মানুষ শ্বাসকষ্টসহ মারাত্মক রোগে আক্রান্ত হয়। তাই অচিরেই এগুলো বন্ধ করা দরকার।

এ প্রসঙ্গে চাঁদপুর পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক এএইচএম রাশেদ বলেন, কয়লায় সালফারের পরিমাণ মাপার যন্ত্র আমাদের নেই। তাই সেটা যাচাই করা সম্ভব নয়। তবে অবৈধভাবে গড়ে উঠা ওইসব ইটভাটার বিরুদ্ধে আমরা অভিযান শুরু করেছি। গত ৩/৪ দিনে ৫টি ইটভাটাকে জরিমানা করে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর