ব্রেকিং:
উৎপাদন বৃদ্ধিতে একযোগে কাজ করার অঙ্গীকার করোনাকালে চূড়ান্ত এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ করোনা মোকাবেলায় বঙ্গবন্ধুর স্বাস্থ্যসেবা দর্শন বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে করোনা পরীক্ষা হবে চার বেসরকারি হাসপাতালে ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রশংসা করলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশে ৫৪৯ নতুন করোনা রোগী শনাক্ত, আরো ৩ মৃত্যু হাসপাতাল থেকে পালানো করোনা রোগীকে বাগান থেকে উদ্ধার চাঁদপুরে ২০০০ পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ চীনের ৪ বিশেষজ্ঞ ঢাকায় আসছেন ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে ১৪শ` কোটি টাকার জরুরি প্রকল্প নির্দেশনা না মানায় গণস্বাস্থ্যের কিট গ্রহণ করিনি বাংলাদেশে ১৯ মের মধ্যে করোনা বিদায় নেবে ৯৭ শতাংশ চাকরির বয়স শিথিলের বিষয় ভাবছে সরকার মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা পেলেন ১৫ চরমপন্থী
  • শনিবার   ৩০ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৪৫৪

চাঁদপুর শহরের দর্জিঘাট এলাকায় ডাকাতিয়া নদীর ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে

দৈনিক চাঁদপুর

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০১৯  

চাঁদপুর শহরের দর্জিঘাট এলাকায় ডাকাতিয়া নদীর ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। যার ফলে হুমকির মুখে রয়েছে প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ অনেক বাড়ি-ঘর। ভাঙ্গন রোধে স্থানীয়ভাবে ফেলা হচ্ছে মাটিভর্তি বস্তা। একই সাথে বড় ধরনের ভাঙ্গন আতঙ্কে বিভিন্ন প্রজাতির ফলদ গাছ কেটে ফেলা হয়েছে।

এদিকে ভাঙ্গন এলাকায় যেসব পরিবারের বসত-ভিটা নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে, তাদের অনেকেই নিজ উদ্যোগে ভাঙ্গন ঠেকাতে বাঁশের খুঁটি গেড়ে ভাঙ্গন রোধ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

জানা যায়, চাঁদপুর পৌরসভার ১২নং ওয়ার্ডস্থ ৬২নং গুণরাজদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে থেকে পার্শ্ববর্তী দর্জি বাড়ি, বেপারী বাড়ির সামনে থাকা ডাকাতিয়া নদী পাড়ের অনেক জায়গা জুড়ে এ ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। ওই দুই বাড়ির বেশকিছু পরিবারের বসতঘর ভাঙ্গনের ঝুঁকিতে রয়েছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, দর্জিঘাট এলাকায় নদীর অপর প্রান্তে দেশ এনার্জি নামক বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র নদীর অংশবিশেষ ভরাট করে নির্মাণ করার ফলে গত কয়েক বছর ধরে অল্প অল্প করে ভাঙ্গন দেখা দেয়। কারণ নদীর ওপারে থাকা চরের সাথে নদীর পাড় জুড়ে বালু ফেলে অনেকটা ভরাট করা হয়েছে এবং প্রায়সময়ই সেখানে বিদ্যুৎকেন্দ্রের মালামাল নিয়ে আসা জাহাজ, শীপ নোঙর করে ফেলে রাখার কারণে নদীর জোয়ার-ভাটার স্রোত ও ঢেউ ভাঙ্গনস্থানে গিয়ে আঘাত করে। তখনই ভাঙ্গন শুরু হয়। তারা জানান, একসময় ভাঙ্গন এলাকার এপারে চর জেগে ছিলো। কিন্তু গত কয়েক বছরের ভাঙ্গনে সেই চরটিও এখন নদীতে বিলীন হয়ে গেছে। আর তার একমাত্র কারণ হচ্ছে দেশ এনার্জি বিদ্যুৎ কেন্দ্র।

গতকাল ৬ নভেম্বর বুধবার সকালেও একইভাবে ভাঙ্গন দেখা দিলে চাঁদপুর পৌরসভার ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান দর্জি বিষয়টি পৌর মেয়র আলহাজ নাছির উদ্দিন আহমেদকে অবহিত করলে তিনি ভাঙ্গনস্থানে প্রাথমিকভাবে মাটির বস্তা ফেলার পরামর্শ দেন। তারপর বুধবার দুপুর পর্যন্ত সেখানে প্রায় এক থেকে দেড়শ' মাটির বস্তা ফেলা হয় বলে জানিয়েছেন হাবিবুর রহমার দর্জি।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর