ব্রেকিং:
মতলবে নতুন সড়ক আইনের ব্যাপক প্রচারণা চাঁদপুরে পাঁচ পুলিশ কর্মকর্তার পদোন্নতি হাজীগঞ্জ যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত ফরিদগঞ্জে পরীক্ষার খাতায় লিখে দেয়ায় শিক্ষককে অব্যাহতি কচুয়ায় পবিত্রতম ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন `বুলবুলে`র প্রভাবে চাঁদপুরে সাড়ে ৮ কোটি টাকার ফসলের ক্ষতি সড়ক দুর্ঘটনায় কচুয়া থানার এএসআই নিহত রোহিঙ্গা নির্যাতনের তদন্তে অনুমোদন দিলো আইসিসি প্রধানমন্ত্রীর দুবাই সফরে তিনটি চুক্তি স্বাক্ষরের সম্ভাবনা ধান কাটার ধুম পড়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মতলবে চাচীকে ব্যাপক মারধর করেছে তারই আপন দেবর পুত্র ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত দম্পতিকে হাজীগঞ্জে দাফন মুজিববর্ষ উদযাপনে জেলা পরিষদ বিশেষ প্রকল্প গ্রহণ হাইমচরে অপসোনিন ফার্মার মহৎ উদ্যোগ টাওয়ারের ব্যাটারী চুরি করতে গিয়ে মৃত্যু চাঁদপুরে ৪ দিন ব্যাপি আয়কর মেলা শ্রেষ্ঠ করদাতার পুরস্কারে ভূষিত মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ চাঁদপুর মাছঘাটের ইলিশ ফুরাচ্ছে না কচুয়ার বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ রব মুক্তারের দাফন সম্পন্ন কচুরিপানার ফলে ডাকাতিয়ায় নৌ চলাচল ব্যাহত

শনিবার   ১৬ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬   ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৬৭৩

জেনে রাখা ভালো, ডেঙ্গু রোগীরা কতদিন পর্যন্ত রক্ত দিতে পারবেন না

প্রকাশিত: ২১ আগস্ট ২০১৯  

ডেঙ্গু রোগীরা সুস্থ হওয়ার পরও তাদের বেশকিছু বিষয়ে খুব সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। এরমধ্যে ডেঙ্গু রোগীরা সুস্থ সঙ্গে সঙ্গেই কাউকে রক্ত দিতে পারবেন না বলেও জানিয়েছেন তারা। কোনো ডেঙ্গু রোগী কাউকে রক্ত দিতে চাইলে সুস্থ হওয়ার পরও তাকে ছয় মাস অপেক্ষা করতে হবে।

পাশাপাশি ডেঙ্গু রোগীকে সুস্থ হওয়ার পর আরো দশদিন মশারির ভেতরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। কারণ হিসেবে চিকিৎসকরা বলছেন, রক্তের মাধ্যমে ডেঙ্গুর জীবাণু ছড়াতে পারে। ডেঙ্গু রোগীর শরীরে সাত থেকে দশদিনের মতো এর জীবাণু থাকতে পারে। এই দশ দিনের মধ্যেই ডেঙ্গু আক্রান্ত কোনও ব্যক্তি কোনও এডিসি মশা কামড় দেওয়ার পর কোনও সুস্থ মানুষকে ফের কামড় দিলেও তিনিও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হবেন।

তাই ডেঙ্গু রোগী সুস্থ হওয়ার পর তিনিসহ তার পরিবারের সদস্যদের নিরাপদ রাখতে  সতর্ক থাকতে হবে। এছাড়া, ডেঙ্গু রোগী সুস্থ হওয়ার পরও পরবর্তী ছয়মাসের ভেতরে কাউকে রক্ত দিতে পারবেন না। কারণ ছয়মাস পর্যন্ত ওই ব্যক্তির শরীরে ডেঙ্গুর জীবাণু থাকতে পারে। তাই কাউকে রক্ত দিলে তার মাধ্যমে ডেঙ্গু ছড়ানোর আশঙ্কা আছে।প্রসঙ্গত, এডিস মশার কয়েকটি প্রজাতি রয়েছে। এর মধ্যে মূলত এডিস এজিপটি প্রজাতির মশাই ডেঙ্গুর ভাইরাস-বাহক হিসেবে কাজ করে।

এই প্রসঙ্গে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসাতালের ভাইরোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. জাহিদুর রহমান বলেন, একজন ডেঙ্গু রোগীকে এডিস মশা কামড়ালে তার শরীরের ভাইরাসের মাধ্যমে আরেকজন আক্রান্ত হতে পারে, এজন্য তাকে মশারীর ভেতরে থাকতে হবে সপ্তাহখানেক।

আবার জ্বর হয়তো কমে গেছে কিন্তু হঠাৎ করেই প্লাটিলেট কমে গিয়ে তার অবস্থা খারাপ হতে পারে। এসব কারণে তাকে সতর্ক থাকতে হবে প্রায় দশদিন। তবে, এটি একটি ভাইরাস জ্বর। তাই রোগী বেশ কয়েকদিন দুর্বল থাকবেন। এজন্য তাকে অন্তত দশদিন অন্যান্য খাবারের সঙ্গে তরল খাবার গ্রহণ করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, এখন ডেঙ্গু আক্রান্ত মানুষের রক্তের প্রয়োজন হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই রক্তদানে আগ্রহীরা  আক্রান্তদের পাশে দাঁড়াবেন। কিন্তু কোনও ডেঙ্গু আক্রান্ত ব্যক্তির অন্তত ছয়মাস আরেকজনকে রক্ত দিতে পারবেন না।  

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর