ব্রেকিং:
রাতেও ইলিশের পাইকারী বাজার জমজমাট চাঁদপুরে ২ হাজার পিস ইয়াবাসহ ৫ মাদক ব্যবসায়ী আটক গণিতে যে কারণে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয় না রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন যেকোনো সময়: পররাষ্ট্র সচিব নেইমারবিহীন পিএসজির হার ৯৯৯ নম্বরে ফোন, উদ্ধার হলেন ২০০ লঞ্চ যাত্রী অস্কারজয়ী রিচার্ড উইলিয়ামস মারা গেছেন স্বাধীনতা বিরোধীরা এখনো ষড়যন্ত্র করছে: আইনমন্ত্রী মার্কিন অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করল জিব্রাল্টার সবার স্বার্থ রক্ষা করতে হবে, চামড়া ইস্যুতে শিল্পমন্ত্রী জয়শঙ্করের সফরে গুরুত্ব পাবে যেসব বিষয় বৌভাতের আগেই ধরা খাওয়া সেই ধর্ষক বরের জন্য একদিনের রিমান্ড মঙ্গল গ্রহে শহর তৈরি করতে যেমন খরচ হবে! বন্যাদুর্গতদের পুনর্বাসনে রয়েছে ১২০ কোটি টাকা বরাদ্দ চামড়া: অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সমাধানে বিকেলে সচিবালয়ে বৈঠক ঘুষদাতার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী জন্মদিনে প্রকাশ পেল ‘গীটার লিজেন্ড’ এর অপ্রকাশিত গান (ভিডিও) টাইগারদের হেড কোচ হলেন রাসেল ডমিঙ্গো মুক্তিযোদ্ধা আলী ইমাম চৌধুরীর ইন্তেকাল সু-খবর দিলো আবহাওয়া অধিদফতর

সোমবার   ১৯ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৪ ১৪২৬   ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
ঈদে স্বাস্থ্য বিভাগের সবার ছুটি বাতিলের সিদ্ধান্ত আলোচনার মাধ্যমেই রোহিঙ্গা সমাধান চায় বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির ব্যর্থতার দগদগে ঘা রয়েছে: ওবায়দুল কাদের জাল নোট চেনার সহজ উপায় গুজব: নায়িকা শাবনূর ‘মারা’ গেছেন!
১৫০

ঢাকা উদ্যানে যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটছে প্রায়ই

প্রকাশিত: ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  

সন্ধ্যার কিছুক্ষণ আগে কোচিং শেষ। অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী কোচিংয়ের আরেক সহপাঠীর সঙ্গে বাসায় ফিরছিল। হঠাৎ এক কিশোর এসে মেয়েটিকে পেছন থেকে জাপটে ধরে। সে নিজেকে ছাড়িয়ে বাড়ির পথে দ্রুত পা চালায়।

ঘটনাটি গত নভেম্বরে মোহাম্মদপুরের ঢাকা উদ্যান এলাকায়। স্কুলছাত্রীটি  বলে, স্কুল–কোচিংয়ে যাওয়া–আসার পথে প্রতিদিনই হেনস্তার শিকার হতে হয়। আর সন্ধ্যার পরে রাস্তায় চলাচল করলে প্রায়ই যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটে।

উঠতি বয়সী ছেলেদের বিরুদ্ধে বেশি অভিযোগ। হয়রানির শিকার এক ছাত্রীর ভাষ্য, ‘উত্ত্যক্তকারীদের বয়স ১৬ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে। তারা দলবদ্ধভাবে থাকে। একজন বাজে মন্তব্য করে বা গায়ে হাত দেয়, বাকিরা হাসাহাসি করে।’ এমনকি স্কুলে মেয়েদের যাতায়াতের দৃশ্য মুঠোফোনে ভিডিও করে প্রেমের প্রস্তাব দেওয়া হয়। এ এলাকায় মেয়েরা স্কুলে যেতে নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে।

ঢাকা উদ্যানের আশপাশের এলাকায় বসবাসকারী মেয়েদের কম–বেশি এমন অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। কমপক্ষে ২০ জন ছাত্রী এবং তাদের অভিভাবকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রাথমিকের গণ্ডি পেরোতেই মেয়েদের যৌন হয়রানির শিকার হতে হয়। আরেকটু বড় হলেই বাজে প্রস্তাব আসতে শুরু হয়। তা প্রত্যাখ্যান করলে নানা অপ্রীতিকর ঘটনার শিকার হতে হয়। তবে সম্প্রতি যৌন হয়রানির ঘটনা বাড়ছে। এমনকি পথচারীদের সামনেও এ ধরনের ঘটনা ঘটে। অভিভাবকেরা মেয়েদের ঘর থেকে বের হতে দিতে নিরাপদ বোধ করেন না। কিংবা নিজেরা সঙ্গে করে মেয়েদের স্কুলে নিয়ে যান।

গত অক্টোবরে এলাকার হাজি জয়নাল আবেদিন মার্কেটের পাশের সড়কে এক ছাত্রীকে ধাক্কা দিয়ে মুঠোফোন নম্বর চায় এক যুবক। নবম শ্রেণির ওই ছাত্রী বিষয়টি পরিবারকে জানালে তার স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে পরিবার। নিপীড়নের শিকার এই ছাত্রীর মা বলেন, ‘মেয়ের স্কুলে যাওয়া বন্ধ রাখছি। বাইরেও যাইতে দিই না। চোখে চোখে রাখি।’ এলাকার কাউন্সিলর বা পুলিশকে এ বিষয়ে কেন জানানো হয় না, জানতে চাইলে উত্তরে এই অভিভাবক বলেন, ‘আমরা গরিব। প্রতিবাদ করলে যদি আরও বড় অঘটন ঘটে। তখন দেখার কেউ থাকবে না।’ এই ছাত্রীর বাবা রিকশা চালান, মা গৃহকর্মীর কাজ করেন। মেয়েকে দেখে রাখার জন্য গ্রামের বাড়ি থেকে নানিকে নিয়ে আসা হয়েছে।

নারী অধিকারকর্মী এবং গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধূরী বলেন, পরিস্থিতি কতটা ভয়াবহ হলে অভিভাবক জিম্মি হয়ে যায়? মেনে নেওয়ার মানসিকতা পরিহার করে অভিভাবককে প্রতিবাদী হতে হবে। পুলিশ–প্রশাসনকে মেয়েদের এই ঝুঁকি থেকে নিরাপদ করতে দায়িত্ব নিতে হবে। তবে সবচেয়ে সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে হবে স্থানীয় কাউন্সিলরকে। তিনি এ ধরনের হয়রানির ঘটনায় সরকারি জরুরি সেবা পেতে ৯৯৯–তে কল করার পরামর্শ দেন।

স্থানীয় মেয়েদের পাশাপাশি অন্য এলাকা থেকে আসা মেয়েরাও হয়রানির শিকার হয়। বেসরকারি সংস্থা সুইচ বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন তিন বছর ধরে এ এলাকায় একটি স্কুল পরিচালনা করছে। এই স্কুলটিতে পড়াতেন ইডেন মহিলা কলেজের এক শিক্ষার্থী। উত্ত্যক্তের কারণে তিনি কয়েক মাস আগে চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন।

সুইচ বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক মুঈনুল ফয়সাল বলেন, এ এলাকায় হয়রানির ঘটনা অনেক বেশি। এ কারণে ইচ্ছা থাকার পরও অনেক নারীশিক্ষক এখানে পড়াতে আসেন না। আবার মেয়েরাও একটু বড় হয়ে গেলে স্কুলে আসে না। তিনি আরও বলেন, বখে যাওয়া তরুণদেরও পরামর্শ (কাউন্সিলিং) দেওয়া যেতে পারে। তাতে কাজ না হলে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

এসব সমস্যার বিষয়ে কথা বলতে  উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তারেকুজ্জামান রাজিবকে তাঁর মুঠোফোনে কল দিয়ে এবং খুদে বার্তা দিয়েও যোগাযোগ করা যায়নি।

এ বিষয়ে মোহাম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জামাল উদ্দিন মীর বলেন, ‘এ এলাকার পরিস্থিতি আগে বেশ খারাপ ছিল। অভিযানের ফলে কিছুটা উন্নত হয়েছে। উত্ত্যক্তের বিষয়ে অভিভাবকদের ভয় ভেঙে অভিযোগ করতে হবে। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর