ব্রেকিং:
নারায়ণগঞ্জ থেকে চান্দ্রায় আসা লোকদের ২৬ বাড়ি লকডাউন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় অ্যাডিশনাল এসপির নেতৃত্বে পুলিশের তৎপরতা বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে দুটি গ্রাম লকডাউন চাঁদপুর জেলা পূর্ণ লকডাউন হাইমচরে জনতা বাজারে জীবাণুনাশক স্প্রে বড়কূল পূর্ব ও পশ্চিম ইউনিয়নে ১০ টাকা কেজি চাল বিক্রয় ইথানলে সারবে করোনাভাইরাস,ব্যবহার পদ্ধতি জানালেন অধ্যাপক আলিমুল দেশে করোনায় আরো একজনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১১২ জেলার সকল প্রবেশমুখ লকডাউন করার আহ্বান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পুরাণবাজার ফাঁড়ি পুলিশের অভিযানে জাটকা ও জাল উদ্ধার মতলব উত্তরে স্থানীয়ভাবে স্বেচ্ছায় লকডাউন ফরিদগঞ্জে কামরুল হাসান সউদের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত হাইমচরে ২০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ পুরাণবাজার ট্রলারঘাটে পুলিশের চেকপোস্ট ॥ ওসির ঘাট পরির্দশন সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন জাবেদ পাটোয়ারী করোনা নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে তাসনিম খলিলের মিথ্যাচার, সৌদি রাজ পরিবারের ১৫০ সদস্য করোনায় আক্রান্ত! যুক্তরাজ্যে প্রথমবার বিবিসি রেডিওতে জুমার নামাজ সম্প্রচার ঘুষের অভিযোগ অস্বীকার করলো কাতার করোনায় মৃত্যু ৮৮ হাজার ছাড়ালো
  • শুক্রবার   ১০ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৭ ১৪২৬

  • || ১৬ শা'বান ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৪৫৯৭

ধানুয়া উবির প্রধান শিক্ষকের পদত্যাগ চেয়ে স্কুলে তালা

দৈনিক চাঁদপুর

প্রকাশিত: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলে তার পদত্যাগ দাবি করে বিক্ষোভ শেষে প্রধান শিক্ষকসহ বিদ্যালয়ের সকল ক্লাসরুমে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে বিক্ষুব্ধ অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। গতকাল রোববার ফরিদগঞ্জ উপজেলার ধানুয়া জনতা উচ্চ বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে। অবস্থা বেগতিক দেখে প্রধান শিক্ষক আনিছুর রহমানের অনুপস্থিতিতে স্কুল বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ।

উপজেলার ৯নং গোবিন্দপুর উত্তর ইউনিয়নের ধানুয়া জনতা উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির অভিভাবক সদস্য ফারুক খান জানান, চলতি মাসে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির মেয়াদ শেষ হচ্ছে। নিয়মতান্ত্রিকভাবে কমিটি গঠন করার জন্যে প্রধান শিক্ষক আনিছুর রহমানকে বিদ্যালয়ের সভাপতি সাবেক সাংসদ ড. শামছুল হক ভূঁইয়া সুস্পষ্ট নির্দেশ দিলেও তাতে কর্ণপাত না করে এডহক কমিটি গঠনের পাঁয়তারা করছেন। বিদ্যালয়ের বিগত ৪ বছরের আয়-ব্যয়ের হিসাবও তিনি কাউকে দেননি। বিদ্যালয়ের সকল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তিনি প্রতিদিন ব্যাগে করে বাসায় নিয়ে যান। প্রয়োজনীয় খরচের ভাউচার নিজে তৈরি করে নিজেই স্বাক্ষর করেন। বিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষককে প্রশিক্ষণে না পাঠিয়ে নিজেই বিভিন্ন প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণের নাম করে প্রায়ই বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকেন। বিদ্যালয়কে তিনি ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দিয়েছেন। তাই ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ প্রধান শিক্ষকের পদত্যাগ চেয়ে বিদ্যালয়ে তালা দিয়েছে। এ সময় অভিভাবক সদস্য জসিম উদ্দীন খান, মুকবুল মিজি, মহসিন গাজী সহ অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

অনিক চন্দ্র দাস নামে এক শিক্ষার্থী জানান, সরকারিভাবে আমাদের স্কুলে পরীক্ষাগারের সামগ্রী এলেও প্রধান শিক্ষক সেগুলো আমাদের ব্যবহার করতে দেন না। আমাদের শ্রেণীর বোর্ড, বেঞ্চ, জানালার গ্লাস, দরজা ভাঙ্গা থাকলেও তিনি সেগুলো মেরামতের ব্যবস্থা গ্রহণ করেন না। কৃষি শিক্ষার স্যার আমাদের রসায়ন পড়ান। আমরা প্রধান শিক্ষকের এ সকল অনিয়মের প্রতিবাদ জানাই।

ঘটনার বিষয়ে জানতে প্রধান শিক্ষক আনিছুর রহমানকে ফোন দিলে তিনি প্রোগ্রামে আছেন বলে ফোন কেটে দেন। তারপর তার ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শাহ আলী রেজা আশরাফী জানিয়েছেন, বিদ্যালয়ে তালা মারার ঘটনাটি প্রধান শিক্ষক আমাকে জানাননি। আমি একাধিকবার ফোন করে তার মোবাইল বন্ধ পেয়েছি। তার বিরুদ্ধে কোন লিখিত অভিযোগও আমার কাছে আসেনি। স্কুল কমিটির সদস্যগণ মৌখিকভাবে ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনের বিষয়ে আমাকে এবং ইউএনও মহোদয়কে অবহিত করেছেন। বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশক্রমে আমি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনিছুর রহমানকে একাধিকবার ডেকেছিলাম। তিনি আসেননি। এ ব্যাপায়ে প্রধান শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিস দেওয়া হবে।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
চাঁদপুর বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর