ব্রেকিং:
একাদশ সংসদের ৫ম অধিবেশন বসবে ৭ নভেম্বর অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে: স্পিকার রাজাকার ওয়াহিদুল হকের বিচার শুরু শপথের মধ্য দিয়ে শেষ হলো বুয়েট শিক্ষার্থীদের আন্দোলন দুর্ঘটনা এড়াতে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির জরুরি সভা করদাতাদের সুবিধার্থে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ অপরাজনীতিমুক্ত ফরিদগঞ্জ গড়তে ভূমিকা রাখবে যুবলীগ সেমি-ফাইনালে চাঁদপুর পদ্মা-মেঘনায় ডিসি-এসপি ভাঙ্গনের কবলে আবারও চাঁদপুরে শহর রক্ষা বাঁধ আগামীকাল রবীন্দ্র-নজরুল স্মরণোৎসব ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা তবুও এতো বরফ যায় কোথায়? তারুণ্যের শক্তি-বাংলাদেশের সমৃদ্ধি ইলিশ ধরার চেষ্টাকারীকে প্রশাসনের কঠোর হুঁশিয়ারি আবরার হত্যাকাণ্ডকে ইস্যু বানাতে চাচ্ছে বিএনপি: কাদের দুর্নীতির অভিযোগে কাঠগড়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট কোটি টাকার কারেন্ট জালে আগুন জনগণের অধিকার সুরক্ষায় আইপিইউকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান বুয়েটে মাঠ পর্যায়ে আন্দোলন স্থগিত

বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৬ সফর ১৪৪১

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৬৩

নেই খেলার সরঞ্জাম, আছে ক্যাসিনো!

প্রকাশিত: ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

যে কোনো খেলার আতুর ঘর বলা হয় ক্লাবকে। খেলোয়াড় তৈরি, প্রশিক্ষণ থেকে শুরু করে সেই খেলোয়াড়কে বড় মঞ্চে তুলে আনা সবকিছুর শুরু হয় একটি ক্লাব থেকে।

অথচ বাংলাদেশের ক্লাবগুলো মান সম্পন্ন খেলোয়াড় তুলে আনা তো দূরের কথা, ঠিকমতো খেলা চালাতেই হিমশিম খায়। অবকাঠামোগত উন্নয়নের বদলে জীর্ণ ও ভগ্নদশায় চলছে ক্লাবগুলো, নেই কোনো জৌলুস। 

সম্প্রতি পরিচালিত অভিযানে যেনো এর পেছনের কারণটিই বেরিয়ে এসেছে। প্রায় সব ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে, ক্লাবগুলোতে খেলার সরঞ্জামের পরিবর্তে আছে ক্যাসিনোর বোর্ড! যেখানে থাকার কথা ক্রিকেটের ব্যাট-বল, ফুটবল, হকির মতো অবকাঠামো। সেখানে গড়ে উঠেছে মাদক আর জুয়ার উৎসাহব্যাঞ্জক ক্যাসিনো। এর থেকে আসা টাকা দিয়ে পেট ভরছে বড় কর্তাদের। কিন্তু ক্লাবের কোনো লাভে আসেছে এই টাকা। উল্টো বিভিন্ন ধরনের অনিয়ম আর দুর্নীতির আখরায় পরিণত হয়েছে এক একটি ক্লাব।

 

 

একসময় দেশের প্রতিটা ইভেন্টে ক্লাবগুলোর প্রতিযোগিতায় মুখরিত ছিল ক্রীড়াঙ্গন। ক্রিকেটের আগে ফুটবল, হকি সহ নানা খেলার প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ আবহ ছিল ক্রীড়াপ্রেমীদের অন্যতম আলোচ্য বিষয়। সকাল বিকাল ক্লাবগুলোতে চলতো অনুশীলন। 

কিন্তু সে দিন পাল্টে গিয়েছে আগেই। এখন মাঠের বদলে মাঠের বাইরের চাল নিয়েই বেশি ব্যস্ত ক্লাব কর্তারা। প্রভাব প্রতিপত্তি বাড়ানোর জন্য অন্যপথে পা বাড়াতে আগ্রহী সবাই। আর তারই ফলস্বরূপ ক্লাবগুলোর ভেতর ঢুকে পড়েছে ক্যাসিনো নামের অভিশাপ।  

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্লাবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানের পরেই মূলত বেরিয়ে আসে পেছনের এ কালো জগতের কথা। কলাবাগান ক্লাবের পর ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান ক্লাব থেকেও পাওয়া যায় ক্যাসিনোর আলামত। অথচ ক্যাসিনোর বদলে সেখানে ক্রীড়া সরঞ্জামাদি দিয়ে ভরপুর থাকার কথা ছিল। এ থেকেই দেশের ক্রীড়াক্ষেত্রে ক্লাবগুলোর দৈন্যতার কারণ বোঝা যায়। 

 

 

ক্যাসিনোতে নিয়মিত বসে জুয়ার আড্ডা। চলে টাকার খেলা। এসবে ব্যস্ত সময় পার করেন ক্লাব কর্তারা। ফলে কোথায় কি করলে ক্লাবের উন্নতি হবে, কিভাবে আরো ভালো খেলোয়াড় তৈরি করা যাবে এসব চিন্তার বদলে ঠাঁই পায় জুয়ার বোর্ড থেকে কিভাবে আয় বাড়ানো যায়। 

ক্লাবগুলোতে ক্যাসিনোর বদলে কিভাবে খেলার সরঞ্জাম বাড়ানো যায়, দক্ষ খেলোয়াড় তৈরি সহ কি করে খেলার প্রতিদ্বন্দ্বিতা বাড়ানো যায় সে দিকেই নজর দিতে হবে। 

খেলার মান কিভাবে বাড়ানো যায় এজন্য চিন্তা করার এখনই উপযুক্ত সময়। দেশের ক্রীড়াঙ্গনকে ক্যাসিনো নামক কালো থাবার হাত থেকে মুক্ত করে ঢেলে সাজানো সময়ের দাবি। 

কিন্তু বিড়ালের গলায় ঘণ্টা বাধবে কে?

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর