ব্রেকিং:
চার্জে দিয়ে মোবাইলে গেম, প্রাণ গেল স্কুলছাত্রের কথা ছিল একসঙ্গে নার্স হবেন, হলেন লাশ বিরল রোগে আক্রান্ত শিশু মাহমুদুল বাঁচতে চায় দুঃসংবাদ জানালো আবহাওয়া অধিদফতর মাশরাফী-সাকিবদের সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী চাঁদপুর পৌরসভার উন্নয়ন কাজ ধারাবাহিকভাবে এগিয়ে চলছে আজ চাঁদপুরে এসেছেন সুজিত রায় নন্দী পানিশূন্য হচ্ছে চেন্নাই! বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ‘শত্রু’ কেন আলিম দার? কালো সোনা সাদা করে হাজার কোটি টাকা পাচ্ছে সরকার মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশনে আপত্তি, নার্সকে পেটাল ফার্মেসির লোক দুই জুলাইয়ের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ধ্বংসের নির্দেশ ২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্র্য শূন্যের কোটায় আসবে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে মামলা করেছে হুয়াওয়ে ফেসবুকে প্রতারণা, কঠোর অবস্থানে ডিএসই ভারতকে হারানোর ক্ষমতা আমাদের আছে: সাকিব ওয়াও সাকিব সাকিবের দিনে টাইগারদের জয় আঘাতে শক্তিশালী হয়েছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা জাতির জনকের আদর্শের কর্মী হিসেবে অন্যায়ের কাছে মাথা নত করবো না

বুধবার   ২৬ জুন ২০১৯   আষাঢ় ১১ ১৪২৬   ২২ শাওয়াল ১৪৪০

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
আওয়ামী লীগই দেশকে এগিয়ে নিচ্ছে: শেখ হাসিনা ব্রাজিল-পেরুর ম্যাচে বাংলাদেশের জার্সি-পতাকা নিয়ে এক সমর্থক আমার হাত দুটো কব্জি থেকে কেটে দেন : বৃক্ষমানব সজীব ওয়াজেদ জয় গুচ্ছগ্রামে আশ্রয় পেল ১৪০ পরিবার ‘সেই স্বাধীনতার সূর্য আওয়ামী লীগের হাতেই উদিত হয়েছিল’
৪০৩

পরীক্ষায় অতিরিক্ত ২০ নম্বর পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা, থাকছে পুরস্কার

প্রকাশিত: ২ জুন ২০১৯  

মুক্তিযুদ্ধের প্রামাণ্য তথ্য সরেজমিন সংগ্রহ করবে স্কুল শিক্ষার্থীরা। আর এর জন্য বার্ষিক পরীক্ষায় বরাদ্দ থাকবে ২০ নম্বর। জাতীয় পর্যায়ে থাকবে পুরস্কার। স্থানীয় পর্যায়ে মুক্তিযুদ্ধের নানা ঘটনা, তথ্য, যুদ্ধের বিবরণ, শহীদদের তালিকা, বধ্যভূমির তালিকা ইত্যাদি তৈরি করবে শিক্ষার্থীরা। নেবে মুক্তিযোদ্ধাদের বক্তব্য। তারপর তৈরি করবে ভিডিও ডকুমেন্টারি। আর এজন্য শিক্ষার্থীরা পাবে অতিরিক্ত ২০ নম্বর। বার্ষিকে প্রাপ্ত ফলে এই নম্বর যোগ হবে। শুরুতে সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য এটি চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) পরিচালক অধ্যাপক ড. সরকার আবদুল মান্নান জানান, সপ্তম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীরা স্থানীয় পর্যায়ে মুক্তিযুদ্ধের প্রামাণ্য তথ্য সংগ্রহ করবে। এজন্য তাদের বাংলা বইয়ের মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক অধ্যায় থেকে ২০ নম্বর বরাদ্দ দেয়া হবে। তথ্য সংগ্রহের প্রয়োজনে শিক্ষার্থীরা স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা এবং শহিদদের বাড়িতে গিয়ে আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে কথা বলবে। বধ্যভূমি এবং যুদ্ধের স্থান সরেজমিন দেখবে।
 
তিনি জানান, সার্বিক তথ্য নিয়ে তারা ৫ মিনিটের একটি ডকুমেন্টারি তৈরি করবে। এ ডকুমেন্টারি দেখে শিক্ষকরা তাদের মূল্যায়ন করে নম্বর দেবেন। আগামী ১৬ ডিসেম্বর শিক্ষার্থীরা উপজেলা সদরে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে এসব ডকুমেন্টারি উপস্থাপন করবে। সেখানে মুক্তিযোদ্ধাদের উপস্থিতিতে এসব ডকুমেন্টারির তথ্য যাচাই-বাছাই হবে। উপজেলা পর্যায়ে  ইউএনও’র নেতৃত্বে ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নেতা, শিক্ষক, উপজেলার বিশিষ্টজনদের নিয়ে গঠিত বাছাই কমিটি সেরা ডকুমেন্টারিগুলো বাছাই করে জেলা পর্যায়ে পাঠাবেন। জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে একই ধরনের কমিটি সেগুলো বিচার করে বিভাগীয় সদরে পাঠাবেন। জাতীয় পর্যায়ে সেগুলোর বিচার শেষে শ্রেষ্ঠ তিনটি ডকুমেন্টারিকে পুরস্কৃত করা হবে। 
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানান, এই কার্যক্রমের সহায়তা দেবে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর। জাদুঘরের সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এরই মধ্যে একটি সমঝোতা হয়েছে। শিশু শিক্ষার্থীদের তৈরি করা ও পুরস্কার পাওয়া শ্রেষ্ঠ ডকুমেন্টারিগুলো মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর সংরক্ষণ করবে। 
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নাজমুল হক খান জানান, এ উদ্যোগের ফলে নতুন প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে, নিজেরা সত্যকে খুঁজে বের করতে পারবে এবং জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের সরাসরি সংস্পর্শে আসতে পারবে। তারা নিজের দেশকে জানতে ও চিনতে পারবে, এতে করে তাদের মধ্যে দেশপ্রেম জাগ্রত হবে। 

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর