ব্রেকিং:
একাদশ সংসদের ৫ম অধিবেশন বসবে ৭ নভেম্বর অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে: স্পিকার রাজাকার ওয়াহিদুল হকের বিচার শুরু শপথের মধ্য দিয়ে শেষ হলো বুয়েট শিক্ষার্থীদের আন্দোলন দুর্ঘটনা এড়াতে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে: প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির জরুরি সভা করদাতাদের সুবিধার্থে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ অপরাজনীতিমুক্ত ফরিদগঞ্জ গড়তে ভূমিকা রাখবে যুবলীগ সেমি-ফাইনালে চাঁদপুর পদ্মা-মেঘনায় ডিসি-এসপি ভাঙ্গনের কবলে আবারও চাঁদপুরে শহর রক্ষা বাঁধ আগামীকাল রবীন্দ্র-নজরুল স্মরণোৎসব ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা তবুও এতো বরফ যায় কোথায়? তারুণ্যের শক্তি-বাংলাদেশের সমৃদ্ধি ইলিশ ধরার চেষ্টাকারীকে প্রশাসনের কঠোর হুঁশিয়ারি আবরার হত্যাকাণ্ডকে ইস্যু বানাতে চাচ্ছে বিএনপি: কাদের দুর্নীতির অভিযোগে কাঠগড়ায় দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট কোটি টাকার কারেন্ট জালে আগুন জনগণের অধিকার সুরক্ষায় আইপিইউকে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান বুয়েটে মাঠ পর্যায়ে আন্দোলন স্থগিত

বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৭ সফর ১৪৪১

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৯৮০

বিয়ে করেছেন বা করবেন, এক্ষুনি জানুন আইন-কানুন

প্রকাশিত: ২৫ জুলাই ২০১৯  

বিয়ে প্রত্যেক ব্যক্তির ক্ষেত্রেই প্রয়োজনীয় এবং গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়। এর মাধ্যমেই দুজন নারী-পুরুষ একই ছাদের নিচে বসবাসের অনুমতি পায়। বর্ণিল এই পৃথিবীতে গড়ে তোলে সুখের এক টুকরো নীড়। দুটি ভিন্ন সত্ত্বা নানান ইস্যুতে ঐক্যমত্যের ভিত্তিতে এগোুয়। একটু একটু করে বাস্তবে রূপ দেয় নিজেদের স্বপ্ন-বাসনা।
তবে বিয়ে আসলে একটি সামাজিক চুক্তি। আর সব ধর্মেই বিয়ের মাধ্যমে নারী-পুরুষের যৌথ জীবন উপভোগের স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে। 

বিয়ের ক্ষেত্রে বিশ্বের বিভ্ন্নি দেশে ভিন্ন ভিন্ন নিয়ম-কানুন রয়েছে। আমাদের দেশেও রয়েছে কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম কানুন। বিয়ে করার জন্য বর ও কনে পক্ষের জন্য দেশে প্রচলিত আইনের যে বিষয়গুলো জানা গুরুত্বপূর্ণ, চলুন এক্ষুনি জেনে নেই-

•    বিয়ের সময় আইন অনুযায়ী উপযুক্ত পাত্রের কমপক্ষে ২১ বছর হতে হবে। আর কনের বয়স কমপক্ষে ১৮ হতে হবে।  

•    এর কম বয়স হলে 'বাল্যবিয়ে' বলে ধরা হবে, যা বেআইনি।

•    বিয়ের এক পক্ষ বিয়ের প্রস্তাব দেবে, অন্য পক্ষ তা গ্রহণ করবে।

•    বিয়েতে দু’জন সাক্ষী থাকতে হবে। 

•    বিয়ের সময় পাত্র ও পাত্রীর মুখে উচ্চারিত 'কবুল' শব্দটি স্পষ্টভাবে বলতে হবে। এছাড়া উভয়ে কোনো রকম চাপ বা প্ররোচনা ছাড়াই তা স্বেচ্ছায় বলবে।

•    একই বৈঠকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে হবে এবং গ্রহণ করতে হবে।

•    মুসলিম আইন অনুযায়ী কোন পক্ষেরই বিয়ের জন্য কোনো ধর্মীয় কিংবা সামাজিক অনুষ্ঠান বাধ্যতামূলক নয়। 

•    কাবিননামায় স্বামী-স্ত্রীর দাম্পত্য জীবনে পালনের শর্তগুলো উল্লেখ থাকবে। 

•    বিয়েতে স্বামী-স্ত্রী উভয়কেই তালাকের অধিকার উল্লেখ রাখতে হবে।

•    পাত্র-পাত্রীর সামাজিক ও শিক্ষাগত মর্যাদা ও আর্থিক সঙ্গতি বিবেচনা করে দেনমোহরের পরিমাণ নির্ধারণ করতে হবে। 

•    বিয়ের বিষয়টি কাগজ-কলমে লিখে রাখাই রেজিস্ট্রেশন। এটি সরকার কর্তৃক নির্ধারিত ফরমে লিখিত বিয়েসংক্রান্ত দলিল, যা কাজি অফিসে সংরক্ষিত থাকে।

•    মুসলিম বিবাহ ও তালাক নিবন্ধন আইন, ১৯৭৪-এর ধারা-৫(৪) অনুযায়ী, বিয়ে নিবন্ধন না করলে এর জন্য দুই বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড বা ৩ হাজার টাকা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করার বিধান রয়েছে।

•    অনেক সময় দেখা যায় ছেলে-মেয়েরা একে অন্যকে ভালোবেসে কোর্ট ম্যারেজ করে। কিন্তু আইনে কোর্ট ম্যারেজ নামে কোন বিধান নেই। তাই এমন বিয়ের বৈধতাও নেই, এটি শুধু বিয়ের ঘোষণা। 

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর