ব্রেকিং:
চাঁদপুরে ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক মতলবে অপরাধ ঠেকাতে রাত্রিকালীন পরিবহন চালকদের স্বেচ্ছায় পাহারা মতলব উত্তর উপজেলা মাসিক আইনশৃঙ্খলা ও সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত লঞ্চ সময় সূচী:চাঁদপুর–ঢাকা–চাঁদপুর কচুয়ায় রমরমা প্রাইভেট বাণিজ্য গরীব শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা বিপাকে চাঁদপুরে মৎস্য আইন না মেনে চলছে বিভিন্ন প্রজাতির মাছ নিধন সিহিরচোঁ সপ্রাবিতে কমেছে শিক্ষার্থী : বাড়ছে টাকা ভাগাভাগি হাজীগঞ্জে ইভটিজিংয়ের অভিযোগে স্কুলের সামনে থেকে দু’কিশোর আটক মতলবে কালের বির্বতনে বিলুপ্তির পথে লাঙ্গল-জোঁয়াল-মই-হালের বলদ চাঁদপুরে ক্লাসিক ডোর গ্যালারীর উদ্বোধন চাঁদপুরে সুমনের পরিবারের পাশে আছে রেমিট্যান্স যোদ্ধা ঐক্য পরিষদ চাঁদপুর অটো মেজর ও হাসকিং মিল সমিতির সভায় গঠনতন্ত্র অনুমোদন ফরিদগঞ্জে স্ত্রীর মামলায় ছেলে আটক, আটকের কথা শুনে পিতার মৃত্যু চাঁদপুরে গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের টুকিটাকি অনৈতিক কাজের অভিযোগে মমিনবাগ থেকে আটক ২ শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ প্রফেসর মনোহর আলীর সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে এখানকার খেলোয়াড়রা কাজ করে যাবে ফরিদগঞ্জ থানার ওসিসহ দুই পুলিশ অফিসার পুরস্কৃত দেশ গড়ার প্রত্যয়ে খেলাধুলাসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে এগিয়ে যেতে চাই চাঁদপুর শহরে তিন প্রতিষ্ঠানকে সতর্ক ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য জব্দ

বৃহস্পতিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৩ ১৪২৬   ১৯ মুহররম ১৪৪১

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৫৩

বৃদ্ধার কান্না: বাবা-মার সঙ্গে আচরণের বদলা পাচ্ছি হাড়ে হাড়ে

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০১৯  

এখন শেষ বয়সে আমি সন্তানদের কাছ থেকে বিতাড়িত। নিঃস্ব স্বজনহীন একাকী জীবনে বৃদ্ধাশ্রমই আমার ঠিকানা। এসবের জন্য আমিই পুরোপুরি দায়ী। কারণ অতীতে আমি আমার বাবা-মার সঙ্গে যা আচরণ করেছি এখন শেষ বয়সে আমার সন্তানদের কাছে থেকে তার বদলা হাড়ে হাড়ে পাচ্ছি।

জীবনের বাস্তবতা উপলব্ধি করে ফেলে আসা স্মৃতি রোমন্থন করে বুক চেপে ধরে হাউমাউ করে কেঁদে এসব কথাই বলছিলেন ভারতের ৭০ বছরের এক বৃদ্ধা। 

ওই বৃদ্ধা বললেন, কথাগুলো কোনোদিন কারো কাছে বলিনি। কিন্তু এখন আর পারছি না। অন্তত তোমাদের শিক্ষার জন্য আজ বলব। শেষ জীবনে আমার সন্তানদের কাছ থেকে অবহেলা, অবজ্ঞা  আর সর্বশেষ ঘরছাড়া হয়ে আজ আমি তা উপলব্ধি করতে পেরেছি।

তিনি বলেন, আমার এমন পরিণতির জন্য আমিই দায়ী। সবই আমার দোষ। জীবনে আমি যদি আমার বাবা-মায়ের সঙ্গে ভালো আচরণ করতাম তবে আজ হয়তো আমাকে স্বজনবিহীন হয়ে বৃদ্ধাশ্রমে আসতে হতো না। সন্তানদের কাছে অপমাণিত হতে হতো না।

বৃদ্ধা বলেন, সবই আমার কপাল। আমার কর্মের ফল। যা আজ আমার সন্তানদের কাছ থেকে আমি ফেরত পাচ্ছি। এরপর একটু শান্ত হয়ে বললেন, এখন যদি বাবা-মা বেঁচে থাকতেন, তবে তাদের পায়ে পড়ে ক্ষমা চেয়ে নিতাম। তাতে অন্তত আমার অন্তরের জ্বালা কিছুটা হলেও কমত। কিন্ত তা তো আর সম্ভব না। আমি বুঝতে পারছি এভাবেই মানসিক যন্ত্রণার পুড়ে আমাকে শেষ পর্যন্ত বিদায় নিতে হবে।

বৃদ্ধার জীবন সর্ম্পকে জানতে চাইলে তিনি অতীতের কথা বলতে শুরু করেন। বলেন, ছোট থেকেই অত্যন্ত মেধাবী ছিলেন। কৃষক পরিবার হওয়ায় সংসারে অর্থকষ্ট লেগেই থাকত। ভাই-বোনদের মধ্যে অত্যন্ত মেধাবী ও লেখাপড়ার প্রতি প্রবল ইচ্ছা থাকায় স্থানীয় পাঠশালায় ভর্তি করে দেন তার পিতা।

প্রতিটি পরীক্ষায় ফলাফলও ভালো করেন। পড়াশোনা শেষ করে সরকারি উচ্চ পদে চাকরিতে যোগ দেন। বিয়ে করেন। এরপর থেকে কারণে-অকারণে বাবা-মায়ের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছেন।

নিজের টাকা পয়সা থাকার পরও তাদের অর্থকষ্টে রেখেছেন। একপর্যায়ে বাধ্য হয়ে বাবা-মা গ্রামে চলে যান। এরপর অভিমানে তারা তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। মারা যাওয়ার আগ পর্যন্ত পিতা-মাতার সঙ্গে তার যোগাযোগ বন্ধ ছিল।

তিনি বলেন, আজ আমি তাদের জায়গায়। এ বয়সে তাদের চেয়েও করুণ অবস্থায় আছি। আমার তিন সন্তানের সবাই ভালো চাকরি করছে। রাজধানীতে বাড়ির মালিক আমি। অথচ আমার টাকায় করা বাড়ি থেকে আমি বিতাড়িত।

অভিযোগের সুরে বৃদ্ধা বলেন, সন্তানদের কেউই আমার খোঁজ নেয় না। যেদিন বের করে দেয় সেদিন অনেক কেঁদেছি। তাদের বললাম, আমি না হয় বারান্দায় থাকব তবুও আমাকে বের করে দিও না। কিন্তু তারা শুনল না।

চোখ মুছতে মুছতে বৃদ্ধা বললেন, আমার কারণে নাকি তাদের সমস্যা হয়, ঘর নোংরা হয়। কথাগুলো বলতে বলতে কান্নায় ভেঙে পড়েন। এখন বুঝতে পারছি, এসবই আমার বাবা মায়ের অভিশাপ।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর