ব্রেকিং:
ফরিদগঞ্জে নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে সঠিক ধারণা বলাখালে স্ট্যান্ডকেন্দ্রিক চাঁদা ও শিক্ষার্থী হয়রানি চাঁদপুরে শিক্ষকদের ১১তম ও ১০তম গ্রেডের দাবি কচুয়ায় ঘরে ঘরে `তথ্য আপা` সেবা পৌঁছে দিচ্ছে মতলবে চাষীদের শীতকালীন সবজি চাষে আগ্রহ চাঁদপুর ও কুমিল্লায় র‌্যাবের অভিযানে মাদক সম্রাট আটক চাঁদপুর সদর উপজেলার রাজরাজেশ্বরে ফের ভাঙন ইচ্ছাকৃত ২০০ বিষধর সাপের কামড় খেয়েছেন এই ব্যক্তি শাহরাস্তিতে মাছের ঘের নিয়ে এলাকাবাসী চিন্তিত অকালে চুলে পাক ধরেছে? বদলাও ইয়ূথ ফাউন্ডেশনের সম্পত্তি লুটপাট করে নিয়ে গেল মাদকসেবীরা হাজীগঞ্জ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির বেতন গ্রেড নির্ধারন নিয়ে তুলকালাম হাজীগঞ্জে মাস ব্যাপী তাঁত বস্ত্র ও কুটির শিল্প মেলার উদ্বোধন হাজীগঞ্জে পুলিশের মাদকবিরোধী ব্লকরেইড মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী কচুয়ায় যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটি গঠন, দেখুন কে কোন পদ পেলো চাঁদপুরে মায়ের পূর্বেই কিভাবে ছেলের জন্ম হলো? জানলে অবাক হবেন বলাখালে অহরহ যেসকল বৈধ ঘটনা ঘটছে ,জানলে চমকে যাবেন মুজিববর্ষ উদযাপনে চাঁদপুর জেলা পরিষদ যেসকল প্রকল্প গ্রহণ করেছে.. ফরিদগঞ্জে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধকে জানো শীর্ষক অনুষ্ঠান

শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৫ ১৪২৬   ২১ মুহররম ১৪৪১

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান রাজধানীতে চার জঙ্গি আটক ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৪৭৯

ভয়েস কলের দিন প্রায় শেষ: মোস্তাফা জব্বার

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০১৯  

ভয়েস কলের দিন প্রায় শেষ হয়ে আসছে বলে জানিছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। তিনি বলেন, কিছুদিন পরেই মানুষ নতুন প্রজন্মের কল প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হবে। কথা বলার জন্য তখন শুধু মাত্র ডাটা খরচ হবে।
শনিবার বিকেলে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে বিশ্ব টেলিযোগাযোগ ও তথ্য সংঘ দিবস উপলক্ষে বিটিআরসি আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোস্তাফা জব্বার তিনটি চ্যালেঞ্জের কথা উল্লেখ করে বলেন, ভয়েস কলের দিন শেষ হয়ে আসছে, সামনে ডেটা কলের দিন। ভয়েস টেকনোলজি হয়ে যাবে আইপি নির্ভর।

তিনি বলেন, এরপর আসছে ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশনের কথা। তবে দেশের ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশনের দিকটা আলাদা। আমরা বলছি, ব্লক চেইন প্রযুক্তি, রোবোটিকস, বিগ ডেটার কথা। এসব প্রযুক্তির মাধ্যমে জীবনযাত্রার মান কতটা উন্নত করতে পারব, তা ভাবতে হবে।

বাংলাদেশে মোবাইল ফোন টাওয়ারের স্পেসিফিক অ্যাবজর্পশন রেট ০.৬ এর ওপর নয় জানিয়ে মোস্তাফা জব্বার জানান, মোবাইল ফোন টাওয়ারেরর রেডিয়েশনের মাধ্যমে পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্য হুমকির সম্মুখীন হচ্ছে এমন অভিযোগ যারা করছেন তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিটিআরসির চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক। 

অনুষ্ঠানে ‘ব্রিজিং দ্য স্ট্যান্ডারাইজেশন গ্যাপ’ শিরোনামে কি-নোট পেপার উপস্থাপন করেন গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্ক প্ল্যানিং অ্যান্ড ডেপ্লয়ম্যান্ট বিভাগের প্রধান মো. সাইফুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, মোবাইল ফোন অপারেটরদের কল ড্রপে গ্রাহক অসন্তুষ্টিতে সরকার বিব্রত হচ্ছে। এ সমস্যা থেকে বের হতে থার্ড পার্টির মাধ্যমে টেকনিক্যাল অডিট করে মোবাইল অপারেটরদের ত্রুটি খুঁজে বের করার প্রস্তাব দেন।

তিনি জানান, বিটিআরসির হিসাবে, ২০১৮ সালের অগাস্ট মাস পর্যন্ত গ্রামীণফোনের কলড্রপের সংখ্যা ১০৩ কোটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা রবি’র কলড্রপ ৭৬ কোটি, বাংলালিংকের কলড্রপ ৩৬ কোটি ও রাষ্ট্রয়ত্ত্ব অপারেটর টেলিটকের কলড্রপ ৬ কোটি।

প্রতিন্ত্রী বলেন, কল ড্রপ নিয়ে বিটিআরসি বলছে এক কথা, মোবাইল অপারেটররা বলছে আরেক কথা। আমরা এখন ডিজিটাল সার্ভিসে কোয়ালিটির কথা বলছি, তখন এই কল ড্রপ নিয়ে সরকারকে নানা বিরূপ মন্তব্য শুনতে হচ্ছে। বিটিআরসি ফিন্যান্সিয়াল অডিট করে, এবার টেকনিক্যাল অডিট হওয়ার প্রয়োজন। থার্ড পার্টির এই অডিটের মাধ্যমে কারণ জানা প্রয়োজন। জানা দরকার ত্রুটি আসলে কোথায়।

তিনি বলেন, সাড়ে ৯ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর দেশে এখন সময় এসেছে সবগুলো ডিজিটাল সার্ভিসের গুণগত মান ঠিক রাখা। আমাদের সার্ভিস ডিজাইনগুলো স্ট্যান্ডারাইজেশনের জন্য প্রয়োজন একটা ডিজিটাল সার্ভিস সেন্টার।

প্রতিমন্ত্রী আরো জানান, পদ্মা সেতুর পাশে ৭০ একর জায়গা নিয়ে গড়ে তোলা হবে শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট ফর ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি, যেখানে আরো প্রশিক্ষিত করা হবে আগামী দিনের প্রযুক্তিবিদদের।

অনুষ্ঠানে স্ট্যান্ডারাইজেশন অব ফাইভ জি শিরোনামে গবেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন হুয়াওয়ে টেকনোলজিসের প্রধান কর্মকর্তা ওয়াং শিউ জেরি। পরে ফাইভ জি নিয়ে গবেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন নোকিয়ার এশিয়া প্যাসিফিক রিজিয়নের গভর্নমেন্ট রিলেশনস বিভাগের প্রধান গিয়ম মাসকট।

উল্লেখ্য, এবার ‘ব্রিজিং দ্য স্ট্যান্ডারাইজেশন গ্যাপ’ প্রতিপাদ্যে বিশ্ব টেলিযোগাযোগ দিবস উদযাপিত হচ্ছে।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর