ব্রেকিং:
উৎপাদন বৃদ্ধিতে একযোগে কাজ করার অঙ্গীকার করোনাকালে চূড়ান্ত এমপিওভুক্তির সুখবর পেল ১৬৩৩ স্কুল-কলেজ করোনা মোকাবেলায় বঙ্গবন্ধুর স্বাস্থ্যসেবা দর্শন বৈশ্বিক ক্রয়াদেশ পূরণে সক্ষম বাংলাদেশ ॥ শেখ হাসিনা মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে মানুষ, দৃষ্টান্ত স্থাপন করে চলেছে করোনা পরীক্ষা হবে চার বেসরকারি হাসপাতালে ২০ হাজারের বেশি আইসোলেশন শয্যা প্রস্তুত রয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনা আক্রান্তের শরীরের অক্সিজেনের পরিমাণ ঘরেই পরীক্ষার উপায় দেশে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত, আরো ৮ মৃত্যু করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রশংসা করলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশে ৫৪৯ নতুন করোনা রোগী শনাক্ত, আরো ৩ মৃত্যু হাসপাতাল থেকে পালানো করোনা রোগীকে বাগান থেকে উদ্ধার চাঁদপুরে ২০০০ পরিবারের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ চীনের ৪ বিশেষজ্ঞ ঢাকায় আসছেন ভেন্টিলেটর-সিসিইউ স্থাপনে ১৪শ` কোটি টাকার জরুরি প্রকল্প নির্দেশনা না মানায় গণস্বাস্থ্যের কিট গ্রহণ করিনি বাংলাদেশে ১৯ মের মধ্যে করোনা বিদায় নেবে ৯৭ শতাংশ চাকরির বয়স শিথিলের বিষয় ভাবছে সরকার মানসম্মত কোন ধাপ অতিক্রম করেনি গণস্বাস্থ্যের কিট প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের টাকা পেলেন ১৫ চরমপন্থী
  • সোমবার   ০১ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৮ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৬২৮

ভয়েস কলের দিন প্রায় শেষ: মোস্তাফা জব্বার

দৈনিক চাঁদপুর

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০১৯  

ভয়েস কলের দিন প্রায় শেষ হয়ে আসছে বলে জানিছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার। তিনি বলেন, কিছুদিন পরেই মানুষ নতুন প্রজন্মের কল প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হবে। কথা বলার জন্য তখন শুধু মাত্র ডাটা খরচ হবে।
শনিবার বিকেলে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে বিশ্ব টেলিযোগাযোগ ও তথ্য সংঘ দিবস উপলক্ষে বিটিআরসি আয়োজিত আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোস্তাফা জব্বার তিনটি চ্যালেঞ্জের কথা উল্লেখ করে বলেন, ভয়েস কলের দিন শেষ হয়ে আসছে, সামনে ডেটা কলের দিন। ভয়েস টেকনোলজি হয়ে যাবে আইপি নির্ভর।

তিনি বলেন, এরপর আসছে ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশনের কথা। তবে দেশের ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভ্যুলেশনের দিকটা আলাদা। আমরা বলছি, ব্লক চেইন প্রযুক্তি, রোবোটিকস, বিগ ডেটার কথা। এসব প্রযুক্তির মাধ্যমে জীবনযাত্রার মান কতটা উন্নত করতে পারব, তা ভাবতে হবে।

বাংলাদেশে মোবাইল ফোন টাওয়ারের স্পেসিফিক অ্যাবজর্পশন রেট ০.৬ এর ওপর নয় জানিয়ে মোস্তাফা জব্বার জানান, মোবাইল ফোন টাওয়ারেরর রেডিয়েশনের মাধ্যমে পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্য হুমকির সম্মুখীন হচ্ছে এমন অভিযোগ যারা করছেন তারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন- তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিটিআরসির চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক। 

অনুষ্ঠানে ‘ব্রিজিং দ্য স্ট্যান্ডারাইজেশন গ্যাপ’ শিরোনামে কি-নোট পেপার উপস্থাপন করেন গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্ক প্ল্যানিং অ্যান্ড ডেপ্লয়ম্যান্ট বিভাগের প্রধান মো. সাইফুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, মোবাইল ফোন অপারেটরদের কল ড্রপে গ্রাহক অসন্তুষ্টিতে সরকার বিব্রত হচ্ছে। এ সমস্যা থেকে বের হতে থার্ড পার্টির মাধ্যমে টেকনিক্যাল অডিট করে মোবাইল অপারেটরদের ত্রুটি খুঁজে বের করার প্রস্তাব দেন।

তিনি জানান, বিটিআরসির হিসাবে, ২০১৮ সালের অগাস্ট মাস পর্যন্ত গ্রামীণফোনের কলড্রপের সংখ্যা ১০৩ কোটি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা রবি’র কলড্রপ ৭৬ কোটি, বাংলালিংকের কলড্রপ ৩৬ কোটি ও রাষ্ট্রয়ত্ত্ব অপারেটর টেলিটকের কলড্রপ ৬ কোটি।

প্রতিন্ত্রী বলেন, কল ড্রপ নিয়ে বিটিআরসি বলছে এক কথা, মোবাইল অপারেটররা বলছে আরেক কথা। আমরা এখন ডিজিটাল সার্ভিসে কোয়ালিটির কথা বলছি, তখন এই কল ড্রপ নিয়ে সরকারকে নানা বিরূপ মন্তব্য শুনতে হচ্ছে। বিটিআরসি ফিন্যান্সিয়াল অডিট করে, এবার টেকনিক্যাল অডিট হওয়ার প্রয়োজন। থার্ড পার্টির এই অডিটের মাধ্যমে কারণ জানা প্রয়োজন। জানা দরকার ত্রুটি আসলে কোথায়।

তিনি বলেন, সাড়ে ৯ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর দেশে এখন সময় এসেছে সবগুলো ডিজিটাল সার্ভিসের গুণগত মান ঠিক রাখা। আমাদের সার্ভিস ডিজাইনগুলো স্ট্যান্ডারাইজেশনের জন্য প্রয়োজন একটা ডিজিটাল সার্ভিস সেন্টার।

প্রতিমন্ত্রী আরো জানান, পদ্মা সেতুর পাশে ৭০ একর জায়গা নিয়ে গড়ে তোলা হবে শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট ফর ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি, যেখানে আরো প্রশিক্ষিত করা হবে আগামী দিনের প্রযুক্তিবিদদের।

অনুষ্ঠানে স্ট্যান্ডারাইজেশন অব ফাইভ জি শিরোনামে গবেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন হুয়াওয়ে টেকনোলজিসের প্রধান কর্মকর্তা ওয়াং শিউ জেরি। পরে ফাইভ জি নিয়ে গবেষণা প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন নোকিয়ার এশিয়া প্যাসিফিক রিজিয়নের গভর্নমেন্ট রিলেশনস বিভাগের প্রধান গিয়ম মাসকট।

উল্লেখ্য, এবার ‘ব্রিজিং দ্য স্ট্যান্ডারাইজেশন গ্যাপ’ প্রতিপাদ্যে বিশ্ব টেলিযোগাযোগ দিবস উদযাপিত হচ্ছে।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর