ব্রেকিং:
পানিশূন্য হচ্ছে চেন্নাই! বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ‘শত্রু’ কেন আলিম দার? কালো সোনা সাদা করে হাজার কোটি টাকা পাচ্ছে সরকার মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশনে আপত্তি, নার্সকে পেটাল ফার্মেসির লোক দুই জুলাইয়ের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ধ্বংসের নির্দেশ ২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্র্য শূন্যের কোটায় আসবে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে মামলা করেছে হুয়াওয়ে ফেসবুকে প্রতারণা, কঠোর অবস্থানে ডিএসই ভারতকে হারানোর ক্ষমতা আমাদের আছে: সাকিব ওয়াও সাকিব সাকিবের দিনে টাইগারদের জয় আঘাতে শক্তিশালী হয়েছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা জাতির জনকের আদর্শের কর্মী হিসেবে অন্যায়ের কাছে মাথা নত করবো না ২০২১ সাল থেকে সব স্কুলে কারিগরি শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হবে একসঙ্গে তিন লটারি জিতে ‘রাতের ঘুম হারাম’ রাজমিস্ত্রি নূরের ঢাবির ৮৭ শিক্ষার্থীসহ ১২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট ভারতের চেয়ে বাংলাদেশে হজ পালনের ব্যয় কম সততার পুরস্কার পেলেন পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের ১৫ কর্মকর্তা স্মার্টফোন ও ট্যাবের মেলা বসবে ৪ জুলাই প্রধানমন্ত্রীর চীন সফরে অগ্রাধিকার পাবে রোহিঙ্গা ইস্যু

মঙ্গলবার   ২৫ জুন ২০১৯   আষাঢ় ১২ ১৪২৬   ২১ শাওয়াল ১৪৪০

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
আওয়ামী লীগই দেশকে এগিয়ে নিচ্ছে: শেখ হাসিনা ব্রাজিল-পেরুর ম্যাচে বাংলাদেশের জার্সি-পতাকা নিয়ে এক সমর্থক আমার হাত দুটো কব্জি থেকে কেটে দেন : বৃক্ষমানব সজীব ওয়াজেদ জয় গুচ্ছগ্রামে আশ্রয় পেল ১৪০ পরিবার ‘সেই স্বাধীনতার সূর্য আওয়ামী লীগের হাতেই উদিত হয়েছিল’
১৪

মিয়ানমারের ওপর চাপ বৃদ্ধি করুন

প্রকাশিত: ১২ জুন ২০১৯  

মিয়ানমারের ওপর চাপ বৃদ্ধি করতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ। যাতে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের জন্য সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টি করে।

বুধবার সকালে ঢাকায় বিদেশি কূটনীতিকদের ব্রিফিংয়ের পর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন বলেন, এ ব্যাপারে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে বাংলাদেশ।

তিনি বলেন, তারা (বিদেশি কূটনীতিক) বলেছেন, তারা আমাদের সঙ্গে আছেন। আমরা তাদেরকে বলেছি, মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগ বৃদ্ধি করুন, যাতে তারা সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টি করে এবং প্রায় সবাই এ ব্যাপারে একমত হয়েছেন।

এর আগে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় কূটনীতিকদের ব্রিফিংয়ে মোমেন অসন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে দ্বিপাক্ষিক অঙ্গীকার অনুসারে রাখাইন রাজ্যে নিরাপদ ও সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টি করতে ব্যর্থ হয়েছে মিয়ানমার।

বাংলাদেশ বর্তমানে ১২ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিচ্ছে। যাদের মধ্যে বেশিরভাগই মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর নির্যাতনে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে।

রোহিঙ্গাদের ওপর হত্যা, ধর্ষণ, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্ন অপরাধের জন্য মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী ও তাদের স্থানীয় সহযোগীদের দায়ী করে আসছে শরণার্থী ও মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো।

এদিকে আলোচনার মাধ্যমে শান্তিপূর্ণভাবে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে ঢাকা ও নেপিডো একটি চুক্তি স্বাক্ষর করলেও মিয়ানমারের পক্ষ থেকে সে ব্যাপারে কোনো অগ্রগতি নেই।

মিয়ানমার তাদের জনগণকে (রোহিঙ্গা) ফেরত নিতে চায় না, যা রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের প্রধান বাধা বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত রোববার গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘সমস্যা রয়েছে মিয়ানমারে। তারা রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে চায় না, এটাই (বড়) সমস্যা।’

বুধবারের ব্রিফিংয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন মিয়নমারের ওপর অব্যাহতভাবে চাপ প্রয়োগের মাধ্যমে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত জনগণকে নিরাপদে ও মর্যাদার সঙ্গে সেখানে (মিয়ানমারে) প্রত্যাবাসনের ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ব্যাপক সম্পৃক্ততা ও কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয়ে সহায়তা চান।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর