ব্রেকিং:
চাঁদপুরের কাছে হেরে গেল নরসিংদী ফুটবল দল মুজিব বর্ষের সকল কর্মসূচিতে যুবলীগ অংশগ্রহণ ও পালন করবে মতলবে শত্রুতার বলি হয়েছে ৬ শতাধিক কাঠ গাছ চাঁদপুর ওয়ারলেছ বাজারে ভ্রাম্যমান আদালত মতলবে ভেজালবিরোধী অভিযান মতলব উত্তরে মাসিক আইন শৃঙ্খলা ও সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত চাঁদপুরে গৃহপরিচারিকার রহস্যময় ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হাজীগঞ্জে স্কুলছাত্রকে গলাকেটে হত্যা, মূল হোতারা আটক চাঁদপুরে বেগুনি রঙের ধান নিয়ে তোলপাড় মুজিববর্ষে ৬৮ হাজার দরিদ্র পরিবার পাবে পাকা বাড়ি বিদ্যুৎ কেড়ে নিল যুবকের প্রাণ শাহরাস্তিতে পিতাকে হত্যার অভিযোগে পুত্র আটক ফরিদগঞ্জ পৌরবাসীর দুঃখ দূর করে স্বপ্ন পূরণ কচুয়ায় অবৈধ গ্যাস সংযোগের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান মতলবে দরিদ্রদের কাজ না দিয়ে ভেক্যু মেশিন দিয়ে রাস্তা নির্মাণ হাজীগঞ্জে অভিনব কায়দায় চুরি হাজীগঞ্জে শিক্ষার্থী হত্যার রহস্য উন্মোচন মতলবে দুটি মহাশশ্মান মন্দিরে চুরি চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে জনগণ হাজীগঞ্জে অবৈধ ইটভাটায় বিশাল অংকের জরিমানা

বুধবার   ২২ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৯ ১৪২৬   ২৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

দৈনিক চাঁদপুর
সর্বশেষ:
একবছরে পাঁচগুণ মুনাফা বেড়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আমাজন বাঁচাতে লিওনার্দোর ৫০ মিলিয়ন ডলারের অনুদান ১৬২৬৩ ডায়াল করলেই মেসেজে প্রেসক্রিপশন পাঠাচ্ছেন ডাক্তার জোরশোরে চলছে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কাজ
৬৮

৯ ডিসেম্বর ১৯৭১: হানাদার বাহিনীর প্রবেশ রুদ্ধ

প্রকাশিত: ৯ ডিসেম্বর ২০১৯  

মুক্তিবাহিনী ও মিত্রবাহিনীর সামনে শুধু ঢাকা দখল লড়াই। সবদিকে দিয়ে মিত্রবাহিনী ঢাকার দিকে অগ্রসর হলো। বাইরে থেকে হানাদার বাহিনীর প্রবেশ রুদ্ধ হয়ে যায়। মিত্রবাহিনী একে একে আশুগঞ্জ, দাউদকান্দি, চাঁদপুর ময়মনসিংহ দখলে নিয়ে নেয়।
একাত্তরের এদিন সকালে হানাদার বাহিনীর ইস্টার্ন কমান্ডের সদর দফতর ঢাকা থেকে প্রথমবারের মতো জেনারেল নিয়াজী স্বীকার করেন, পরিস্থিতি নিদারুণ সংকটপূর্ণ। আকাশে শত্রুর প্রভুত্বের কারণে পুনর্বিন্যাসকরণ সম্ভব নয় বলে একটি সংকেতবাণীও পাঠানো হয় রাওয়ালপিন্ডিতে। দ্রুত মুক্ত হতে থাকে একের পর এক জায়গা। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধকে নস্যাৎ করে দেয়ার জন্য পাকিস্তানের সহযোগী যুক্তরাষ্ট্রের প্রচেষ্টা থেমে থাকেনি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এ সময় পাকিস্তানকে সহযোগিতা করার পদক্ষেপ নেয়।

আজকের এই দিনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নিক্সন তার সপ্তম নৌবহরকে বঙ্গোপসাগরের দিকে রওনা হতে আদেশ দেন। উদ্দেশ্য, মুক্তিযোদ্ধাদের মনোবল ভেঙে দেয়া। কিন্তু উদ্দেশ্য সফল হয়নি। কারণ বীর সন্তানদের মনোবল ভেঙে দেয়া মোটেও সহজ কাজ নয়। মুক্তিযুদ্ধের এই দিনে যে জায়গাগুলো শত্রুমুক্ত হয়, তাদের অন্যতম হলো দাউদকান্দি, গাইবান্ধা, কপিলমুনি, ত্রিশাল, নকলা, ঈশ্বরগঞ্জ, নেত্রকোণা, পাইকগাছা, কুমারখালী, শ্রীপুর, অভয়নগর, পূর্বধলা, চট্টগ্রামের নাজিরহাটসহ বিভিন্ন এলাকা।

দাউদকান্দি শত্রুমুক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে মূলত মেঘনার সম্পূর্ণ পূর্বাঞ্চল মুক্তিবাহিনীর দখলে আসে। এর আগে কুমিল্লা মুক্ত হওয়ার খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে দাউদকান্দির মুক্তিযোদ্ধারা দ্বিগুণ উৎসাহ নিয়ে হানাদার বাহিনী ও তাদের দোসরদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। মুক্তিবাহিনীর হামলায় টিকতে না পেরে পাক হানাদার বাহিনী ঢাকার দিকে পালিয়ে যায়।

দৈনিক চাঁদপুর
দৈনিক চাঁদপুর
এই বিভাগের আরো খবর