বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ১ ১৪২৬   ১৬ সফর ১৪৪১

প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় দু’জন গ্রেফতার

দৈনিক চাঁদপুর

প্রকাশিত : ০৩:৩৩ পিএম, ২৭ আগস্ট ২০১৯ মঙ্গলবার

চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১১নং ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের তমু মিজি বাড়ির মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরী (১৫) কে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

প্রতিবন্ধী কিশোরী ওই এলাকার বশির আহমেদ ও মানছুরা বেগমের মেয়ে। ধর্ষণে ঘটনায় মা মানছুরা বেগম ফরিদগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত জসিম ঢালী ও তার এক সহযোগীকে আটক করেছে পুলিশ। পশ্চিম আলোনিয়া এলাকার বছির উল্যার নির্যাতিতা মেয়েটি আলোনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী।

জানা গেছে, ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১১ নং ইউনিয়নের তমু মিজি বাড়ির বশির আহমেদের প্রতিবন্ধী কিশোরী গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়িতে একা ছিলো। প্রতিবন্ধী কিশোরীকে একা পেয়ে জনপ্রতিনিধির ভাতিজা জসীম ঢালী ও তার দুই সহযোগী হানু বেপারী ও ওসমান বেপারীসহ জোরপূর্বক বাড়ির পাশের বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

প্রতিবন্ধী কিশোরীর মা মানছুরা বেগম বলেন, আমার প্রতিবন্ধী মেয়েকে বাড়িতে একা পেয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির ভাতিজা জসীম ঢালী ও তার সহযোগীরা জোর পূর্বক বাড়ির পাশের বাগানে ধর্ষণ করেছে।

প্রতিবন্ধী কিশোরীর বাবা বলেন, আমার মেয়েকে ধর্ষণ করেছে স্থানীয় প্রভাবশালী এক জনপ্রতিনিধির ভাতিজা। তারা আমার প্রতিবন্ধী মেয়েকে রাতের আধারে ধর্ষণ করে। তারা এলাকায় বিভিন্ন সময়ে দলের এবং ঐ জনপ্রতিনিধির নাম ভাঙ্গিয়ে এই রকম কাজ করে আসছে। তাদের ভয়ে কেউ মুখ খোলার সাহস পায়না। আমি আমার মেয়ে ধর্ষণের বিচার চাই এবং আমাদের পরিবারের নিরাপত্তা চাই।

তিনি আরও জানান, আমার মেয়েকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করেছে। মুখ খুললে ভিডিও সবাইকে দেখাবে বলে হুমকি দিয়ে আসছে।

ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রকিব জানান, প্রতিবন্ধী কিশোরীর মা মানছুরা বেগম ধর্ষণের একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তারই আলোকে অভিযুক্ত জসীম ঢালী ও তার এক সহযোগীকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা ধর্ষণের সাথে জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’